Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

জয়পুরহাট খাদ্য নিয়ন্ত্রকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

জয়পুরহাট জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

জয়পুরহাট জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ও সদর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা কর্তৃক চলতি বোরো সংগ্রহ মৌসুমে সরকারি নীতিমালা অমান্য করে ১০১ জন মিলারের মধ্যে মাত্র ২৬ জনকে বিশেষ বরাদ্দ প্রদানের প্রতিবাদে গতকাল সোমবার মানববন্ধন করেছে বঞ্চিত মিলাররা। জয়পুরহাট কেন্দ্রীয় মসজিদ চত্তরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন মেসার্স শাহীন চাল কলের স্বত্ত¡াধিকারী খন্দকার আবুল হাসনাত, ব্যবসায়ী আমান উল্লাহ আমান, দেলোয়ার হোসেন, নজরুল ইসলাম, এমদাদ হোসেন, হারুনুর রশিদ প্রমুখ। তারা বলেন জয়পুরহাট সদর উপজেলার ৮টি অটো রাইস মিল, ৫টি সেমি অটো রাইস মিল ও ১৩টি হাসকিং মিলের ক্যাপাসিটি ভূয়া কাগজপত্র ও অফিসে বসে ফাইলওয়ার্কের মাধ্যমে ২গুন থেকে ৪ গুণ বাড়িয়ে উল্লিখিত এই ২৬ জন মিলারকে বরাদ্দ প্রদান করায় ৭৫ মিলারকে বঞ্চিত করা হয়েছে। বিশেষভাবে বরাদ্দ দেয়া ২৬ জন মিলারের কাছ থেকে ক্যাপসিটি বাড়ানোর জন্য জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মনিরুল ইসলাম ও উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা আব্দুস সাত্তার প্রতি কেজি চালের জন্য দেড় টাকা থেকে দুই টাকা ধরে কমিশনের মাধ্যমে চলতি মৌসুমে ওই দুই কর্মকর্তা ৬ হাজার মে. টন চাল বরাদ্দের মাধ্যমে প্রায় দেড় থেকে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ ব্যাপারে ২ কর্মকর্তা তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন