Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

নাইন ইলেভেনের গোপন প্রতিবেদন সউদী সম্পৃক্ততার প্রমাণ নয় : সিআইএ প্রধান

প্রকাশের সময় : ১৪ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সিআইএ প্রধান জন ব্রেনান বলেছেন, নাইন ইলেভেনের হামলা সংক্রান্ত ২০০২ সালের কংগ্রেসের গোপন প্রতিবেদন সউদী সম্পৃক্ততার প্রমাণ নয়। প্রতিনিধি পরিষদ ও সিনেট গোয়েন্দা কমিটি প্রণীত ২৮ পৃষ্ঠার গোপনীয় প্রতিবেদন প্রকাশ করা হবে কিনা সে ব্যাপারে শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সিনেট গোয়েন্দা কমিটির তৎকালীন প্রধান সাবেক সিনেটর বব গ্রাহাম অভিযোগ করে বলেন, সউদী কর্মকর্তারা নাইন ইলেভেনে বিমান ছিনতাইকারীদের সহায়তা করেন। তিনি আরো বলেন, ২৮ পৃষ্ঠার প্রতিবেদন জনসম্মুখে প্রকাশ করা উচিত। সউদী মালিকানাধীন টেলিভিশন আল আরাবিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ব্রেনান বলেন, ২৮ পৃষ্ঠার এ প্রতিবেদনে আমি বিশ্বাস করি, ফল বেরিয়ে এসেছে। আমি মনে করি, এটা ভালো যে ফল পাওয়া গেছে। তবে হামলায় সউদী আরবের যোগসাজশের প্রমাণ হিসেবে জনগণের এটা গ্রহণ করা উচিত হবে না।তিনি উল্লেখ করেন, আল কায়েদা জঙ্গিরা বিমান ছিনতাই করে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্র, পেন্টাগন ও পেনসিলভানিয়ার একটি মাঠে আঘাত হানার এক বছর পর এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়। আল কায়েদার ওই হামলায় প্রায় ৩ হাজার মানুষ নিহত হয়। তিনি বলেন, এটা খুবই প্রাথমিক পর্যালোচনা। হামলার পেছনে কারা সে ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করা হয়েছে। তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে ৯/১১ কমিশন সউদী সম্পৃক্ততা ও সউদী সরকারের সম্পৃক্ততার অভিযোগ আদ্যোপান্ত যাচাই-বাছাই করেছে। এরপর তাদের সিদ্ধান্ত হলো,  প্রতিষ্ঠান হিসেবে সউদী সরকার বা দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ব্যক্তিগতভাবে ৯/১১ হামলার সমর্থন করেছে এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ ৯/১১ কমিশন গঠন করেছিলেন এবং এ কমিশন ২০০৪ সালে তথ্য উপস্থাপন করে। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন