Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

গোপালগঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে বহিষ্কার নিয়ে তোলপাড়

গোপালগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩:৩৪ পিএম

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সাময়িক বহিষ্কৃত ছাত্রী তার নিজের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি করেছেন।

আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া পড়ালেখার পাশাপাশি একটি জাতীয় দৈনিকের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক হিসেবেও কাজ করেন।

তিনি অভিযোগ করছেন, তাকে সম্প্রতি তার সাংবাদিকতা ও ফেসবুক স্ট্যাটাসের জের ধরে সাময়িক বহিষ্কার করে কর্তৃপক্ষ।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য তার সঙ্গে অশালীন শব্দ ব্যবহার করে খারাপ আচরণ করেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এদিকে উপাচার্য অধ্যাপক খন্দকার মোঃ নাসিরউদ্দীন অভিযোগ করছেন, ছাত্রীটি অন্তত দুবার তার ফেসবুক আইডি হ্যাক করেন।

এছাড়া উপাচার্যের ভাষায়, ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া আরেক ছাত্রের যোগসাজশে 'ভিসি, প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয় ধ্বংসের মহাপরিকল্পনা' করছিল এই প্রমাণ তারা পেয়েছেন। একারণেই তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

এই ঘটনাটি বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ব্যাপক আলোচনা সৃষ্টি করেছে।

উপাচার্যের বক্তব্য, ওই শিক্ষার্থী যদি তার দোষ স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করে তবে তার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেয়া হবে।

কিন্তু জিনিয়া বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেন,"আমি যেখানে অপরাধই করিনি, সেখানে কেন ক্ষমা চাইবো"।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ