Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

আবারও জুটি বাঁধছেন রণবীর কাপুর ও ক্যাটরিনা কাইফ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:৩৩ পিএম

রণবীর কাপুর এবং ক্যাটরিনা কাইফের প্রেমের সম্পর্কটি কারও অজানা নয়। সালমান খানের সঙ্গে ব্রেকআপ হলে ক্যাট সুন্দরীর নৌকা ভিড়েছিল রণবীর কাপুরের ঘাটে। তবে দুঃখের বিষয় তাদের সে সম্পর্কও খুব বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। কারণ রণবীর কাপুরের মা নীতু সিং কাপুর ছেলের প্রেমিকাকে একদমই পছন্দ ছিল না। মায়ের অপছন্দের কারণেই ক্যাট সুন্দরীর সঙ্গে ব্রেকআপ করেন রণবীর।

ক্যাটরিনাকে ছেড়ে রণবীর কাপুর বর্তমানে প্রেমে মজেছেন আলিয়া ভাটের সঙ্গে। খুব শিগগিরই তারা বিয়েও করতে যাচ্ছেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। অন্যদিকে রণবীরের সঙ্গে ব্রেকআপের পর ক্যাটরিনা আবারও ফিরেছেন সালমানের কাছে। সালমানের সঙ্গে এক হয়ে নতুন নতুন সিনেমাতে অভিনয়ও করছেন। এইতো কিছুদিন হলো সালমান এবং ক্যাটরিনা অভিনীত ‘ভারত’ উপভোগ করেছেন দর্শক। ক্যাটরিনা তার সাবেক প্রেমিক সালমান খানের বিপরীতে পুনরাই কাজ করলেও রণবীরের সঙ্গে একদমই যোগাযোগ বিছিন্ন রয়েছে অবিনেত্রী। কাজতো দুরে থাক দুজনের দেখা পর্যন্ত হয় না। তবে বরফ গলতে শুরু করেছে ক্যাটরিনার।

তাইতো তাদের ভক্তদের জন্য উড়ে এলো এক সুখবর। মুম্বাইয়ের অন্দর মহলে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে আবারও এক হতে যাচ্ছেন রণবীর ও ক্যাটরিনা! তাহলে কি আলিয়া ভাটের কপাল পুড়তে যাচ্ছে? না, ঠিক এমনটি নয়। রণবীর ও ক্যাট এক হচ্ছেন ঠিকই কিন্তু ব্যক্তিগত সম্পর্কে নয়। তারা শীঘ্রই এক সঙ্গে একটি কাজ করতে চলেছেন।

ভারতীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, খুব শিগগিরই রণবীর এবং ক্যাটরিনা কাইফ একটি মোবাইল ফোনের বিজ্ঞাপনের কাজ করতে যাচ্ছেন। খুব শীঘ্রই এর শুটিং হবে মুম্বাইয়ে। তবে কোন মোবাইলের বিজ্ঞাপনে কাজ করবেন তারা সেটা পরিস্কার জানা যায়নি।

এদিকে রণবীর এই মুহূর্তে অয়ন মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ সিনেমার কাজে ব্যস্ত। এতে রণবীর ছাড়া আরও অভিনয় করছেন অমিতাভ বচ্চন, আলিয়া ভাট, ডিম্পল কাপাডিয়া, মৌনি রায় সহ অনেকে। অন্যদিকে ক্যাটরিনা ব্যস্ত আছেন অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ‘সূর্যবংশী’ সিনেমার কাজে। এটি পরিচালনা করছেন রোহিত শেঠি।

উল্লেখ্য, রণবীর ও ক্যাটরিনাকে সবশেষ একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল অনুরাগ বসুর ‘জগ্গা জাসুস’ সিনেমাতে। সিনেমাটি বক্স অফিসে তেমন একটা সফলতা না আনতে পারলেও সমালোচক মহলে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছিল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ