Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

বরিশালে নাজুক ড্রেনেজ ব্যবস্থা

নগরবাসীর অসচেতনতা দুর্ভোগ বাড়াচ্ছে

বরিশাল ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম


 বরিশাল মহানগরীর পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা যথেষ্ট নাজুক। ফলে একটু ভারি বর্ষণেই দুর্ভোগ বাড়ছে নগরবাসীর। তবে ৩০টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ৫৮ বর্গ কিলোমিটারের এ নগরীতে সোয়া ৩শ’ কিলোমিটার ড্রেনের এখনো ১৩০ কিলোমিটারই কাঁচা। পাকা ১৯০ কিলোমিটার ড্রেনেরও বেহাল দশা। এসব ড্রেনের বেশিরভাগই সময়মত পরিস্কার হয়না বলে অভিযোগ রয়েছে। পাশাপাশি কতিপয় বিবেকহীন নগরবাসী কাঁচা-পাকা ড্রেনের পাশে ময়লা-আবর্জনা ও বর্জ্য ফেলার পাশাপাশি বালু পাথরের মত নির্মাণ সামগ্রী রেখেও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা রুদ্ধ করছে।

নগরীর নবগ্রাম রোডের বটতলা বাজার থেকে চৌমাথা পর্যন্ত ৮ ফুট প্রশস্ত দেড় কিলোমিটার লম্বা কভার্ড ড্রেনটির অভ্যন্তর থেকে ময়লা আবর্জনা পরিস্কারের কাজ চলমান থাকাবস্থায়ই ফরেস্ট্রার বাড়ি পুলের পশ্চিম পাশে নির্মাণাধীন একটি বহুতল ভবনের বালু ও পাথরের মত নির্মাণ সামগ্রী ফেলে রাখা হয়েছে। এসব বালু ও পাথর মূল ড্রেনের পাশের স্যালো ড্রেনের ইনলেট পকেট দিয়ে ড্রেনে প্রবেশ করছে। বাঁধাগ্রস্থ হচ্ছে পানি অপসারণের পথ। ফলে বৃষ্টিবিহীন দিনেও এ ড্রেনের পানিতে নবগ্রাম রোডের অনেক এলাকা সয়লাব হতে দেখা যায়।

এ ধরনের ঘটনা বরিশাল মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় অহরহ ঘটলেও তা দেখার কেউ আছে বলে মনে করেন না বেশিরভাগ নগরবাসী। অথচ অত্যাধিক জনবলের চাপে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের আর্থিক ও সাংগঠনিক ভিত ন্যুব্জ। নগরীর রাস্তাঘাট ও ড্রেনসহ সিটি কর্পোরশনের স্থাপনা সমূহ দেখভালের জন্য নগর ভবনে একাধিক রোড ইন্সপেক্টরও রয়েছে। কিন্তু এ ধরনের অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতা বন্ধে তাদের কোন ভ‚মিকা চোখে পড়ে না নগরবাসীর।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নগরবাসী

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ