Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

সাতক্ষীরায় গয়নার জন্য গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:৪২ পিএম

সাতক্ষীরা জেলার পাটকেলঘাটায় বিয়ের মাত্র এক মাস ১৮ দিন পর পাঁচ ভরি সোনার গয়নার জন্য সুমা হালদার (১৮) নামে এক গৃহবধূকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন হত্যা করেছে অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামের মালোপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এরপর থেকে ওই গৃহবধূর স্বামী, শ্বাশুড়ি ও ভাসুর পলাতক রয়েছে। নিহত সুমা হালদার পুলিন হালদারের মেয়ে। তার স্বামী তালা উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের আনন্দ বিশ্বাসের ছেলে সুব্রত।

নিহতের বাবা পুলিন হালদার অভিযোগ করেন, মাত্র একমাস ১৮ দিন আগে সুব্রত বিশ্বাসের সঙ্গে তার মেয়ে সুমা হালদারের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় তার দেয়া পাঁচ ভরি সোনার গয়না নেয়ার জন্য সুমাকে নিয়মিত চাপ দিত তার স্বামী সুব্রত, শ্বাশুড়ি করুনা বিশ্বাস ও ভাসুর বাসুদেব বিশ্বাস। সুমা হালদার তার নিজের ব্যবহারের গয়না দিতে রাজি না হওয়ায় তার স্বামী, শ্বাশুড়ি ও ভাসুর তাকে মঙ্গলবার রাতে পিটিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ঘরের আড়ার সাথে গলায় গামছা দিয়ে ঝুলিয়ে দেয়। পরে তারা এলাকায় প্রচার করে যে, সুমা আত্মহত্যা করেছে।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রিজাউল ইসলাম জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর আসল রহস্য জানা যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাতক্ষীরা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ