Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

নতুন নিরাপত্তা উপদেষ্টা নিয়োগ দিলেন ট্রাম্প

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:১২ পিএম

জন বোল্টনকে অপসারণের পর এবার নতুন মার্কিন নিরাপত্তা উপদেষ্টার নিয়োগ দিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত সপ্তাহে ইরান, আফগানিস্তান ও ভেনেজুয়েলাসহ আরও বেশ কিছু ইস্যুতে মতবিরোধের জেরে বোল্টনকে তার পদ থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন ট্রাম্প।
হোয়াইট হাউস সূত্রের বরাতে ‘বিবিসি’ জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের নতুন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে রবার্ট ও ব্রেইনকে নিয়োগ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি এতদিন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ দূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ট্রাম্প প্রশাসনের চতুর্থ নিরাপত্তা উপদেষ্টা ও প্রেসিডেন্টের অন্যতম আস্থাভাজন ব্যক্তিত্ব।
বিশ্লেষকদের মতে, সদ্য নিয়োগ পাওয়া মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডবিøউ বুশ ও বারাক ওবামার সময়কালেও প্রশাসনের বেশ গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন। যদিও প্রেসিডেন্টের কাছে এ পদে কাউকে নিয়োগ দেয়ার ক্ষেত্রে মার্কিন পার্লামেন্ট কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ এবং প্রতিনিধি পরিষদের কোনো অনুমোদনের প্রয়োজন হয় না।
মার্কিন সেনাবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা রবার্ট ও ব্রেইনকে ২০০৫ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডবিøউ বুশ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে মার্কিন প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ দেন। যেখানে তিনি সদ্য পদত্যাগী নিরাপত্তা উপদেষ্টা বোল্টনের সঙ্গেও কাজ করেছেন। যদিও তখন বোল্টন ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত।
নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষে এক টুইট বার্তায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, আমাদের নতুন জাতীয় নিরাপত্তা হিসেবে রবার্ট ও ব্রেইনের নাম ঘোষণা করতে পেরে আমি ভীষণ আনন্দিত। তিনি দীর্ঘদিন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ দূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার সঙ্গে দীর্ঘ সময় যাবত আমি কাজ করছি। আশা করছি, সে খুব ভালো কিছুই করবে।
এর আগে গত বছরের ২৩ মার্চ জন বোল্টনকে দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও তিনি তখন বলেছিলেন, বোল্টন আমার পছন্দের একজন ব্যক্তি।
ট্রাম্প প্রশাসনে বোল্টনের আগে এইচ আর ম্যাকমাস্টার এবং মাইকেল ফ্লিন দেশের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ