Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

লাঙ্গল-ধানের শীষ-মোটরকারে সরগরম রংপুর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:১৯ পিএম

রংপুর-৩ আসনে উপ-নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীদের প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে নগরীর আশপাশের এলাকা। পুরোদমে চলছে মাইকিং, ব্যানার-পোস্টার সাঁটানো আর হ্যান্ডবিল বিতরণ। মঙ্গলবার প্রতীক বরাদ্দের পর রাতেই প্রচারণায় নামেন প্রার্থীরা। গতকাল সকালে বিএনপির প্রার্থী রিটা রহমান নগরীর রাধাবল্লভ এলাকাসহ কয়েকটি স্থানে গণসংযোগ করেন। এদিকে এরশাদের ভাতিজা স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ শাহরীয়ার নগরীর সাতমাথা থেকে প্রচারণা শুরু করেন। বিকাল ৪টার দিকে নগরীর বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে এরশাদপুত্র সাদ এরশাদ নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নামেন। বিএনপির ধানের শীষ প্রার্থী রিটা রহমান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ শাহরীয়ার প্রচারণায় ব্যাপক সারা ফেলেছে। তবে প্রচারণায় পিছিয়ে রয়েছেন সাদ এরশাদ। ভোটারদের আলোচনায় সরগরম শহরের চা দোকানগুলো। চলছে নির্বাচনী আলোচনা। কয়েকজন ভোটারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রার্থী যেই হোক যিনি রংপুরের মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থাকবেন, অবহেলিত রংপুর-৩ আসনের উন্নয়ন করবেন তাকে তারা ভোট দিতে চান। রংপুর আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সভাকক্ষে একজন স্বতন্ত্রসহ অন্য পাঁচ দলের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হয়। প্রতীক বরাদ্দের পরই নিজ নিজ দলের পক্ষে সাধারণ ভোটারদের মাঝে লিফলেট বিতরণ, গণসংযোগ ও মাইকিং চলছে সদর-নগরজুড়ে। মহাজোট সমর্থিত জাতীয় পার্টির প্রার্থী রাহগীর আল মাহি সাদ এরশাদ (লাঙ্গল), বিএনপির রিটা রহমান (ধানের শীষ), এরশাদের ভাতিজা স্বতন্ত্র প্রার্থী হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ (মোটরগাড়ি-কার) প্রতীক নিয়ে ভোটযুদ্ধের মাঠে নেমেছেন। বসে নেই খেলাফত মজলিসের তৌহিদুর রহমান (দেয়াল ঘড়ি), এনপিপির শফিউল আলম (আম) এবং গণফ্রন্টের কাজী মো. শহীদুল্লাহ (মাছ)।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উপনির্বাচন

৬ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ