Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

কেরানীগঞ্জে সাজেদা হাসপাতালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, ৩০হাজার টাকা জরিমানা

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯:৪৩ পিএম

ঢাকার কেরানীগঞ্জে সাজেদা হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন । হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি এক শিশুর বিল পরিশোধ করতে না পারায় এবং শিশুটিকে তার মায়ের দুধ পান করতে না দেয়ার অভিযোগে হাসপাতাল কতৃপক্ষকে এই টাকা জরিমানা করা হয়। সাজেদা হাসপাতালে ভর্তিকৃত এক নব জাতকের বাবার করা অভিযোগের ভিত্তিতে আজ বৃহস্পতিবার(১৯সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টায় জিনজিরার ছাটগাও এলাকায় অবস্থিত সাজেদা হাসপাতালটিতে কেরানীগঞ্জ রাজস্ব সার্কেল সহকারী কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেলের নেতৃত্বে এই ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হয়।
কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেব নাথের কাছে দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায় মোঃ সুজন নামে এক ব্যাক্তি তার ৭দিন বয়সী এক শিশুকে গত ১২ সেপ্টেম্বর অসুস্থ্য অবস্থায় সাজেদা হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতাল কতৃপক্ষ শিশুটিকে আইসিইউ বা অন্য কোন রুমে রেখেছেন তা শিশুটির বাবা-মাকে কিছুই জানতে দেয়া হয়নি। এমনকি শিশুটির সাথে তার বাবা-মাকেও দেখা পর্যন্ত করতে দেয়া হয়নি। আজ সকালে হাসপাতাল কতৃপক্ষ শিশুটিকে ছুটি দেন এবং ৭দিনে ৩৬ হাজার ১’শ টাকার বিল শিশুটির বাবা-মাকে ধরিয়ে দেন। এসময় শিশুটির দরিদ্র বাবা মোঃ সুজন বিলটি পেয়ে হতবাক হয়ে যান । সে একপর্যায়ে হাসপাতাল কতৃপক্ষকে ৫হাজার টাকা দিতে চাইলে তারা সম্পুর্ন বিল পরিশোধ করে শিশুটিকে নিতে হবে বলে সাফ জানিয়ে দেন। এসময় শিশুটির মা বাচ্চাটিকে বুকের দুধ পান করাতে চাইলে হাসপাতাল কতৃপক্ষ তাতে নিষেধ করেন। এতে শিশুটিকে তার মা আর দুধ পান করাতে পারেননি। এই অভিযোগের ভিত্তিতেই কেরানীগঞ্জ রাজস্ব সার্কেল সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল সাজেদা হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালিয়ে হাসপাতাল কতৃপক্ষকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং শিশুটিকে হাসপাতাল থেকে মুক্ত করে তার বাবা-মায়ের কাছে তুলে দেন। এব্যাপারে কেরানীগঞ্জ রাজস্ব সার্কেল সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল জানান,শিশুটির বাবা মোঃ সুজনের দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতেই সাজেদা হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালিয়ে তাদেরকে ৩০ হাজার টাকা জরিমান করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতে এধরনের কোন ঘটনা পুনরাবৃত্তি না ঘটানোর জন্য হাসপাতাল কতৃপক্ষকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সাজেদা হাসপাতালের মার্কেটিং ম্যানেজার হারুন-অর-রশিদ জানান,শিশুটিকে মায়ের দুধ পান করার বিষয়ে কোন নিষেধ করা হয়নি। সন্ধ্যায় ৫হাজার টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্রাম্যমাণ আদালত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ