Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ব্যবস্থা নিতে শিক্ষার্থীদের আহ্বান

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ব্যবস্থা নিতে দায়ী রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ঢাকার স্কুল ও কলেজের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী। গতকাল রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে সমবেত হয়ে এই আহ্বান জানায় তারা। সুইডেনের জলবায়ু কর্মী গ্রিটা টুনবার্গের ডাকে সাড়া দিয়ে শিক্ষার্থীরা দুপুর পর্যন্ত মানববন্ধন ও সমাবেশ করে। সেভ দ্য চিলড্রেন এবং গ্রিন বেভার অ্যাসোসিয়েশন যৌথভাবে শিক্ষার্থীদের এই সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশে রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড ও স্কুল ক্যাবিনেট সদস্যরাসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরাও অংশ নেয়। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সম্পর্কে জনসাধারণকে সচেতন হওয়ার আহ্বানও জানানো হয় শিক্ষার্থীদের সমাবেশ থেকে। এসময় দেশের পরিবেশ দ‚ষণের বিরুদ্ধেও কঠোর পদক্ষেপের দাবি জানান তারা। এছাড়া পরিবেশবিদরা এই সমাবেশে একাত্মতা জানিয়ে এখনই সরকারকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সমাবেশে গ্রিন সেভারের প্রেসিডেন্ট আহসান রনি জলবায়ু পরিবর্তনের জন্যে দায়ী রাষ্ট্রগুলোকে আরও সতর্ক হতে বলেন। অন্যথায় তাদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।

পরিবেশবাদী আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান বলেন, গোটা দেশের ফুসফুস সুন্দরবনকে কিছু বিরূপ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ধ্বংস করে দেয়া হচ্ছে।

পরিবেশবিদ স্থপতি ইকবাল হাবিব বলেন, শিশুরা বুঝতে পেরেছে বাঁচতে হলে তাদের নিজেদেরকে রাস্তায় নামতে হবে।

গত বছর আগস্টে সুইডেনের পার্লামেন্টের বাইরে দাঁড়িয়ে শিশু গ্রিটা জলবায়ু পরিবর্তন রোধে প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রতিবাদ করেন। পরে সে ‘ফ্রাইডে ফর ফিউচার’ নামে বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তন বিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলে।

সারাবিশ্বে শিশুদের মধ্যে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সম্পর্কে সচেতন করতে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের শিকার দেশগুলোর কৌশলগত অবস্থান তুলে ধরার জন্যে ‘ফ্রাইডে ফর ফিউচার’ প্লাটফর্মের মাধ্যমে কাজ করা হচ্ছে।

সেই কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকায় শিক্ষার্থীরা সমাবেশ করে এবং সচেতনতামূলক প্ল্যাকার্ড ও ব্যানার বহন করে। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে পরবর্তী এক সপ্তাহ চলবে শিশুদের প্রতিবাদ কর্মসূচি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ