Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

কদমতলীতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

রাজধানীর কদমতলীতে পায়েল (১৮) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার সকাল ৮টার দিকে নতুন শ্যামপুর হাই স্কুল রোডের হক সাহেবের ৪ তলা বাড়ির দ্বিতীয় তলা থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। মৃতের স্বজনদের অভিযোগ, পারিবারিক কলহের জেরে পায়েলের মাদকাশক্ত স্বামী তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত স্বামী রাশেদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মৃত পায়েলের মা মরিয়ম বেগম বলেন, স্বামী হাবিব মিস্ত্রি ও দুই ছেলেকে নিয়ে হাই স্কুল রোডের জাকির এর বাড়িতে ভাড়া থাকেন তিনি। এক বছর আগে প্রেম করে তার মেঝো মেয়ে পায়েল ও রাশেদ বিয়ে করে। এরপর একই রোডের হক সাহেবের বাড়িতে ভাড়া থাকতো তারা।
তিনি বলেন, পায়েলের স্বামী রাশেদ মাদকাসক্ত। বিভিন্ন সময় পায়েলকে কারণে অকারণে নির্যাতন করতো। গত শুক্রবার রাতেও পায়েলের সঙ্গে বাকবিতন্ডা হলে মারধর করে। পরে রাগ করে পায়েল বাসা তালা দিয়ে তাদের (মায়ের) বাসায় চলে আসলে রাতেই রাশেদ তাকে নিতে আসে। সে যাবেনা বললে আবারও বাকবিতন্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে পায়েল রাশেদের সঙ্গে বাসায় চলে যায়। এ সময় রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় পায়েলকে মারধর করতে করতে করতে নিয়ে যায় রাশেদ।

এদিকে, শনিবার সকালে তিনি খবর পান- পায়েলকে তার স্বামী মেরে ফেলেছে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি রাশেদের বাসায় গিয়ে দেখেন, বাসার খাটের উপর অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে পায়েল। তার সমস্ত শরীরে আঘাতের চিহ্ন। এ সময় রাশেদও বাসায় ছিলো। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে রাশেদকে আটক করে এবং পায়েলের লাশ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

কদমতলী থানার এসআই মো. শহিদুল্লাহ মামুন বলেন, পায়েলের গলায়, মুখমন্ডলসহ শরীরে বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে- তাকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত রাশেদকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে।

কমলাপুরে ট্রেনের কাটায় কিশোরের মৃত্যু : রাজধানীর কামলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত পরিচয় এক কিশোরের (১৫) মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার বেলা ১২টার দিকে ৫ নম্বর প্ল্যাটফর্মে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্টেশনে থাকা পথশিশু হৃদয়ব বলে, একটি ট্রেন স্টেশনের ৫ নম্বর প্ল্যাটফর্মে এসে ইঞ্জিন ঘুরানোর সময় ওই কিশোর ইঞ্জিনের ওপর উঠে বসে। কিন্তু ইঞ্জিনটি ঘোরানোর সময় হঠাৎ সে চাকার নিচে পড়ে যায়। এতে ট্রেনে কাটা পড়ে গুরুতর আহত হয় সে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঢাকা রেলওয়ে থানার ওসি রকিবুল হোসেন বলেন, নিহত কিশোরের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেকের মর্গে রাখা হয়েছে।

হাতিরঝিল থেকে অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার : রাজধানীর হাতিরঝিল থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার ভোরে হাতিরঝিলের কুনিপাড়া থেকে ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়।
হাতিরঝিল থানার ওসি আব্দুর রশিদ বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে হাতিরঝিলে ভাসমান অবস্থায় ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে। তার নাম-পরিচয় জানা যায়নি। মৃতের পরনে চেক গেঞ্জি ও প্যান্ট পরিহিত ছিল।

ওসি আরও বলেন, লাশটি দেখে মনে হচ্ছে আনুমানিক ২-৩ দিন ধরে পানিতে ছিল। লাশের শরীরে কোনও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
দুই নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার : রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুই নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার গুলশান ও বাড্ডা থেকে ওই লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে।

গুলশান থানা সূত্র জানায়, গতকাল সকাল ৮টার দিকে গুলশান থেকে সেলিনা আক্তার (৩৫) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার স্বামীর নাম তালিম হোসেন। তারা গুলশানের শাহাজাদপুরের বাসিন্দা। গুলশান থানার এসআই কামরুল ইসলাম বলেন, সেলিনা আক্তারের লাশ ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে অন্য কোনো কারণ থাকলে সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিকে, গতকাল দুপুর দুপুর ১২টার দিকে বাড্ডা থেকে দীপা বন (২৮) নামের অপর এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার স্বামীর নাম শোভন মন্ডল। তারা স্বাধীনতা সরণি বাগানবাড়ি এলাকায় থাকতেন। বাড্ডা থানার এসআই ফেরদৌস আলম বলেন, শোভন মন্ডলের বাড়ি গোপালগঞ্জে। তিনি ইস্টার্ন প্লাজা মার্কেটে কাজ করেন। ঘটনার আগে তিনি সকালে বাসা থেকে কর্মস্থলে যান। আশপাশের লোকজনের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে দীপা বনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তদন্তের পরে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ