Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

প্রশ্ন : আমি সরকারি চাকুরিজীবী। আমার স্থাবর-অস্থাবর যা আয় আছে তা থেকে যদি সম্পত্তির কোন অংশ সওয়াবের আশায় লিল্লাহে ওয়াকফ করে দেই তাতে আমার গুণাহ হবে কিনা? আমার স্ত্রী ও সন্তানেরা এটা চায় না। সংসারের ভরণ পোষণ ও তাদের ভবিষ্যৎ অংশ রেখেই আমি এটা করতে চাই।

আহসান হাবীব
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:৪৬ পিএম

উত্তর : এক তৃতীয়াংশ আপনি এভাবে ওয়াকফ করতে পারেন। তবে, লিল্লাহে ওয়াকফ যে সরকার বা লোকজনের তত্ত্ববধানে করবেন, এর ভবিষ্যত খুব ভালো হবে না। আমাদের দেশে কারও সম্পদের নিরাপত্তা নিশ্চিত নয়। তাই, স্ত্রী সন্তানের তত্ত্বাবধানে ওয়াকফে আওলাদ করুন। এতে তারাই নিয়ন্ত্রক থাকবে। বৈধ সুবিধা নিতে পারবে। আপনার প্রস্তাবিত অংশ আল্লাহর রাস্তায়ও ব্যয়িত হবে। স্ত্রী সন্তানকে স্বচ্ছল রেখে যাওয়া তাদের অভাবী রেখে যাওয়ার চেয়ে উত্তম। তাদের দান করতে শিখিয়ে যান। যদি ভালো মনে করেন, নিজ হাতে সদকায়ে জারিয়ায় টাকা পয়সা বিনিয়োগ করে যান। ওয়াকফ না করাই ভালো। কারণ, এসবের ভবিষ্যত আশানুরূপ হয় না। এরচেয়ে বরং নিজ উত্তরাধিকারীদের জন্য রেখে যাওয়া উত্তম। 

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশ্ন

৭ আগস্ট, ২০২০
৩১ জুলাই, ২০২০
২৪ জুলাই, ২০২০
১০ জুলাই, ২০২০
৩ জুলাই, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ