Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

আওয়ামী লীগ ধোয়া তুলসী পাতা নয়- সেতুমন্ত্রী

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১০:০০ পিএম
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ ধোয়া তুলসি পাতা নয়। এখানে কেউ চাঁদাবাজি করে না, কেউ টেন্ডারবাজি করে না  ,কেউ গডফাদারগিরি করে না এই দাবি তো আমরা করিনি। আমরা  পিউরিটির কালচার গড়ে তুলছি। বিএনপি পারেনি। 
 
বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ মন্তব্য করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭৩তম জন্মদিন উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ৭৩ মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি ও প্রধানমন্ত্রীর রচিত গ্রন্থ উপহার প্রদান উপলক্ষে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড আখতারুজ্জামান, জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান ও বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান ভীষ্মদেব চৌধুরী।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ কমিটির চেয়ারম্যান এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সী।
 
অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগকে খারাপ খবরের শিরোনাম না হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 
 
ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, রাজনীতিকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ধারায় ফিরিয়ে আনতে হবে। ছাত্রলীগকে সুনামের ধারায় ফিরিয়ে আনতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করতে হবে। ছাত্রলীগকে খারাপ খবরের শিরোনাম হওয়া যাবে না ,ভালো খবরের শিরোনাম হতে হবে‌।
 
মন্ত্রী ছাত্রলীগকে এমন নির্দেশনা দিলেও সোমবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালানো হয়। এতে পেশাগত দায়িত্বপালনকালে বিশ্ববিদ্যালয় তিন সাংবাদিককে মারধর করা হয়।
 
 তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ধোয়া তুলসি পাতা নয়। এখানে কেউ চাঁদাবাজি করে না, কেউ টেন্ডারবাজি করে না  ,কেউ গডফাদারগিরি করে না এই দাবি তো আমরা করিনি। আমরা  পিউরিটির কালচার গড়ে তুলছি। বিএনপি পারেনি। বিএনপি হাওয়া ভবনকে লুটপাটের আখড়ায় পরিণত করেছিল।
তিনি বলেন, কেবল ক্যাসিনো আর জুয়ার কথা বলেন
শেখ হাসিনার এ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। দুর্নীতিবাজ টেন্ডারবাজদের বের করা হচ্ছে, খুঁজে খুঁজে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে ।তেমনি এটাও বের করা হচ্ছে এদের অর্জিত অবৈধ অর্থ এদেশের কোন কোন নেতার কাছে যেত। অবশ্যই এরমধ্যে পত্রপত্রিকায় অনলাইন পত্রিকা নিউজ এসে গেছে অনেক বিএনপি নেতার কাছেও এই ক্যাসিনো মালিকদের টাকা যেতো। বিএনপিকে সেই প্রশ্নেরও জবাব দিতে হবে।
 
বিএনপিকে আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসী দল আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, তাদের মুখে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলা আর ভূতের মুখে রাম রাম একই কথা। প্রধানমন্ত্রী ঘর দিয়ে শুরু করে দৃষ্টান্ত শুরু করেছেন। দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবে।


 

Show all comments
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১০:৩৮ পিএম says : 0
    সেতুমন্ত্রী বহুবার বলেছেন আওয়ামী লীগ ধোয়া তুলসী পাতা নয় কথাটা খুবই সত্য কথা। ওনার কথাটাই বার বার বিভিন্ন শুদ্ধি অভিযানে দেখা যাচ্ছে। আওয়ামী লীগে জনগণ একমাত্র এবং একমাত্র নেত্রী হাসিনা ছাড়া আর কাওকে ধোয়া তুলসী পাতা মনে করেন না এটাই সত্য। এখন যতটুকু আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা রয়েছে এটা শুধু মাত্র জননেত্রী হাসিনার কল্যাণে এটাও সত্য। বিএনপি যেমন একটা দালান হাওয়া ভবনের মাধ্যমে লুটপাট, দুর্নীতি, সন্ত্রাস কায়েম করেছিল সেটাকে আওয়ামী লীগ বৃদ্ধি করে কয়েক ভবনের মাধ্যমে লুটপাট, দুর্নীতি, সন্ত্রাস কায়েম করে আসছিল। এখন সেসব লুটপাট, দুর্নীতি, সন্ত্রাস সুদ্ধী অভিযানের মাধ্যমে সমাপ্তি করার প্রচেষ্টা চলছে। লক্ষনিয় হচ্ছে যেসব ভবন ভিন্ন দল থেকে আগত আওয়ামী লীগ নেতারা পরিচালনা করছে সেসব প্রতিষ্ঠানই বিচারের আওতায় আসছে। এখন এটাও পরিষ্কার এদের দেয়া স্বীকারোক্তির মাধ্যমে বিএনপি, জামাত, শিবির নেতাদের যাদেরকে এখনও কায়দা করে বিচারের আওতায় আনা যাচ্ছে না তাদেরকেও বিচারের আওতায় নেয়ার ব্যাবস্থা করা হচ্ছে। আল্লাহ্‌ আমাদের দেশের রাজনৈতিক নেতা ও পুলিশদেরকে সত্য কথা বলা ও সততার সাথে চলার ক্ষমতা দান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • ইসমাইল হোসেন ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:৩৫ পিএম says : 0
    সব রাজনৈতিক দল ধোয়া তুলসী পাতা. ১৬ কোটি নিরীহ মানুষ অপরাধী.
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:৩৬ পিএম says : 0
    মাননীয় মন্ত্রী জাতীয় প্রয়োজনে এই অভিযান। এই আইন শৃংখলা বাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ অভিযানে আওয়ামীলীগ প্রধান বাংলাদেশের আটার কোটি মানুষের প্রধান মন্ত্রীর সাহসী সিদ্ধান্ত নিজ দলের নেতাদের ঘুম হারাম দুর্নীতিবাজরা দিশেহারা অবৈধ অর্থ সম্পদের মালিকরা বূঝতে পারেননী বঙ্গবন্ধুর শ্রেষ্ঠ সম্মদ দক্ষিণ এশিয়ার লৌহ মানবী মাননীয় প্রধান মন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে যত রকমের অনৈতিক কার্যক্রম আর করার সুযোগ দিবেননা। ইতিহাস এর বিশাল অর্থনৈতিক উন্নয়নশীল বাংলাদেশের রুপকার দিন রাত পরিশ্রম করে গুটিকয়েক রাজনৈতিক নেতাদের কারণে বঙ্গবন্ধুর ক্ষুদা দারিদ্র্য মুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন ধ্বংস হতে দিতে পারেন না। অপরাধী আইনের আওতায় আনতে হবে। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় বাংলা মায়ের সাহসী সন্তান র‍্যাব পুলিশ আইন শৃংখলা বাহিনী নিয়ে সব্বোউচ্ছ প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের গঠন মুলক সিদ্ধান্ত নিন। বিরাট কাজে হাত দিয়েছেন। সমস্ত জাতীয় পত্রিকার পাতায় ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমে আপনাদের দুর্নীতি বিরোধী অভিযানের উদ্দেশ্য জাতি কে জানান। আরও বিজ্ঞ জ্ঞানী রাজনৈতিক নেতাদের প্রশাসনের উচ্চ পয্যায়ের অফিসার দের আলাপ আলোচনার মাধ্যমে মধ্য পন্থা অবলম্বন করে অভিযান পরিচালনা করুন। ত্যাগী নেতাদের মুল্যবান কথা শুনুন। শত শত বার অত্যন্ত মার্জিত ভাবে জনপ্রিয় পত্রিকা ইনকিলাবের অতি ক্ষুদ্র কলমে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর প্রতি নিঃশর্ত সম্মান শ্রদ্ধায় লিখে যাচ্ছি। চলবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ