Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার না পাওয়া নিয়ে অরুণার কোনো দুঃখবোধ নেই

অভি মঈনুদ্দীন: | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস এ পর্যন্ত প্রায় তিনশ’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন। নায়িকা হিসেবে যেমন অভিনয় করেছেন, তেমনি চরিত্রাভিনেত্রী হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এত সিনেমায় অভিনয় করার পরও গুণী এই অভিনেত্রী কখনো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাননি। এ নিয়ে অবশ্য তার কোনো দুঃখবোধ নেই। তিনি মনে করেন, দর্শকের যে ভালবাসা তা যে কোনো পুরস্কারের চেয়ে বেশি মূল্যবান। এ ভালবাসা পুরস্কার দিয়ে মাপা যায় না। আমি আজকের যে অবস্থানে এসেছি, তা দর্শকের ভালবাসার কারণে। দর্শকই আমার সবচেয়ে বড় পুরস্কার। অরুণা তার ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় খান আতাউর রহমানের ‘পরশ পাথর’, শিবলী সাদিকের ‘সম্মান’, বাবরের ‘দয়াবান’, চাষী নজরুল ইসলামের ‘হাঙ্গর নদী গ্রেনেড’, এমএম সরকারের ‘আতœসম্মান’ এবং সুভাষ দত্তের ‘আবদার’,-এর মতো অনেক দর্শকপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এসব সিনেমায় তিনি যে অভিনয় করেন তাতে, অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাবেন। তবে তিনি তা পাননি। তিনি বলেন, অনুনয়-বিনয় করে বা সম্পর্কের খাতিরে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া নিয়ে আমার কখনোই কোনো আগ্রহ ছিল না, এখনও নেই। যোগ্যতার মাপকাঠিতে পেলে পাব, না পেলে নাই। দর্শকের ভালবাসাই আমার সবচেয়ে বড় পুরস্কার। আজীবন এটাই ধরে রাখতে চাই। তিনি বলেন, ‘আমি বিশ^াস করি বাংলাদেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শক আমাকে ভালোবাসেন। তবে এটা বিশ্বাস রাখি, একদিন হয়তো সৎ পথে থাকার পুরস্কার পাব। জাতীয় পর্যায়েও স্বীকৃতি। আবার হয়তো যেদিন এই স্বীকৃতি পাব, তার প্রতি কোন আগ্রহ বা ভালোবাসা থাকবে না। কারণ যখন মানুষের ভালোবাসার প্রয়োজন হয়, যখন মানুষের স্বীকৃতির আকাক্সক্ষা থাকে তখন না পেলে ন্যায় বিচার হয় না।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় চলচ্চিত্র


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ