Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

আল্লামা মুফতী উবায়দুর রহমান খান নদভী | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৫ এএম


দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম
প্রশ্ন : বৈশাখী মেলা অথবা হিন্দুদের বাৎসরিক মেলায় চটপটি বা খাবারের দোকান করা যাবে কি?
উত্তর : মেলায় করা যাবে। সরাসরি পূজার উৎসবে না করাই বাঞ্ছনীয়। তবে, পুজা উপলক্ষে নিজের কেনাকাটা বৃদ্ধি বা ব্যবসা ভালো হলে এতে কোনো দোষ নেই।
প্রশ্ন : আমার স্ত্রীকে নির্দেশ দিয়েছি যেন সে খালে ও পুকুরে গিয়ে গোসল না করে, কিন্তু সে আমার নির্দেশ মানছে না। শরীয়তে রয়েছে, স্ত্রী অবাধ্য হলে তাকে তালাক দেওয়া যায়। এ অবস্থায় আমার স্ত্রীকে তালাক দেওয়া যাবে কি না, জানতে চাই।
উত্তর : আপনার স্ত্রী আপনার কথার গুরুত্ব ও যৌক্তিকতা বুঝতে পারলে অবশ্যই তা পালন করবেন। আপনি তাকে সুন্দর করে বুঝিয়ে বলুন। স্ত্রীর যে ধরনের অবাধ্যতা বা সমস্যার ক্ষেত্রে তাকে তালাক প্রদানের নিয়ম শরীয়তে রয়েছে, আপনার সমস্যাটি এর ধারে কাছেরও না। আপনি এমন একটি বিষয়ে তালাকের কথা ভাবলে খুবই অন্যায় করবেন। আপনার জানা উচিত, আল্লাহর নিকট দুনিয়ার সর্বপেক্ষা ঘৃণিত বৈধ কাজ হচ্ছে তালাক। তালাক প্রদানের শরীয়তসম্মত নীতি রয়েছে, তা অনুসরণ না করে অজ্ঞের মতো তালাক দিলে ঘর ভেঙ্গে যায় ঠিকই কিন্তু এতে করে আল্লাহ তায়ালার গজবে নিপতিত হতে হয়। তালাক নিয়ে ভাবনা চিন্তার আগে এর স্বরূপ, গুরুত্ব, তাৎপর্য ও বিধিমালা সম্পর্কে কোনো বিজ্ঞ আলেমের নিকট জেনে নিন।
প্রশ্ন : কাজি এবং একজন সাক্ষী দিয়ে কি বিয়ে সহিহ হবে?
উত্তর : কাজি যদি একজন সাক্ষী হন, তাহলে অন্যজনসহ তো সাক্ষী দু’জনই হলেন। অতএব, বিবাহ সহিহ হবে। সাক্ষী কমপক্ষে দু’জন হতে হয়। প্রয়োজনে তাদের নাম ঠিকানা লিখতে হয়। মূলত শরীয়তে সাক্ষী থাকাই জরুরী। এ সাক্ষী মসজিদ বা বিয়ের মজলিসের সব লোকই হতে পারে। যেখানে বিয়ে পড়ানো হয়, সেখানকার সব মানুষ যখন সাক্ষী তখন আলাদা সাক্ষীর নাম ঠিকানা ও দস্তখত শরীয়তে জরুরী নয়। এটি আইনের প্রয়োজনে রাখা হয়।
-আল্লামা মুফতী উবায়দুর রহমান খান নদভী



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন