Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

অচলাবস্থা উঠিয়ে নিতে কাশ্মীরে ত্বরিত পদক্ষেপ চায় যুক্তরাষ্ট্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:৫৪ এএম

কাশ্মীরে আরোপিত কঠোর বিধিনিষেধ উঠিয়ে নিতে এবং আটক বন্দিদের ছেড়ে দিতে ভারতের ত্বরিত পদক্ষেপ দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক এক জ্যেষ্ঠ মার্কিন কূটনীতিক বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীরে রাজনৈতিক জীবন ফিরিয়ে দিতে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক মার্কিন অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি এলিস ওয়েলস এ কথা বলেছেন।

গত ৫ আগস্ট অধিকৃত কাশ্মীরের সাংবিধানিক স্বায়ত্তশাসনের অধিকার বাতিলে মোদির নেতৃত্বাধীন ভারতের হিন্দুত্ববাদী সরকারের সিদ্ধান্তের পর রাজ্যটিতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

রাজ্যটিতে তখন থেকেই যোগাযোগ অচলাবস্থা চলছে। মোবাইল ও ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। রাজনীতিবিদ ও নিরাপদ লোকজনকে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। আটকদের মধ্যে শিশুরাও রয়েছে।

রাতের বেলায় বাড়িতে বাড়িতে সেনা অভিযানে কাশ্মীরের বাসিন্দারা এক আতঙ্কের জীবন কাটাচ্ছেন।

সাংবাদিকদের অ্যালিস ওয়েলস বলেন, আমি মনে করি আমরা পরবর্তী পদক্ষেপগুলো সম্পর্কে জানতে আগ্রহী। সেখানে আরোপ করা কঠোর বিধিনিষেধ উঠিয়ে নিতে ও যাদের আটক করা হয়েছে, তাদের ছেড়ে দিতে দ্রুত পদক্ষেপ দেখব বলে আমরা আশা রাখছি।

তিনি বলেন, কম বাগাড়ম্বরপূর্ণ বক্তৃতাকে স্বাগত জানানো হবে। বিশেষভাবে দুই পরমাণু শক্তিধর দেশের মধ্যে।

দীর্ঘদিন ধরে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনার মূলকেন্দ্রবিন্দু হয়ে আসছে মুসলমান অধ্যুষিত। দুই দেশই রাজ্যটির একটা অংশ শাসন করলেও তারা অখণ্ড ভূখণ্ডটিকেই দাবি করে আসছেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে আলাদাভাবে দেখা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর পরেই ওয়েলসের এ বক্তব্য এসেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন