Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সাফ শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে চায় কিশোরীরা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:১২ পিএম

দু’বছর আগে ঢাকায় সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের ফাইনালে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। গেল বছর ভুটানে সেই ভারতের কাছে একই ব্যবধানে হেরেই শিরোপা খোঁয়া যায় লাল-সবুজদের। তবে এবার সাফ শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে চায় বাংলাদেশ কিশোরী দল। টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরে নিজেদের দ্বিতীয় শিরোপা জয়ের লক্ষ্যেই সোমবার ভুটানে যাচ্ছেন শামসুন্নাহার, রুপনা চাকমারা। বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটে দ্রুক এয়ারওয়েজে রওয়ানা হবে ২৯ সদস্যের বাংলাদেশ দলটি। চার দেশের অংশগ্রহণে ভুটানের রাজধানী থিম্পুতে অনুষ্ঠিত হবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা।

রোববার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনের সভাকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক শামসুন্নাহার জুনিয়র বলেন, ‘আমরা চ্যাম্পিয়ন ট্রফির জন্যই খেলতে যাচ্ছি।’ ২০১৭ সালে ঢাকায় যখন খেলতে যায় মারিয়া মান্ডা, সানজিদারা শিরোপা জিতেছিলেন তখন একেবারেই নতুন ছিলেন তারা। যে অবস্থা আজ শামসুন্নহারদের। কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেন, ‘আজ মারিয়া, সানজিদা, আখিরা বড় তারকা। কিন্তু একদিন এই অনূর্ধ্ব-১৫ দলের মতোই ছিল তারা। একদিন এই শামসুন্নাহার ও রুপনা চাকমারাও বড় তারকা হবে। তবে সেজন্য পরিশ্রম করতে হবে। যা তারা করছে।’ এবারের বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৫ নারী দলটি একেবরেই নতুন একটি দল।

নারী জাতীয় ফুটবল দলে কোন পাইপ লাইন নেই। এটি পুরনো অভিযোগ। এ বিষয়ে ছোটনের কথা, ‘আমাদের পাইপলাইনে বেশ ক’জন নারী ফুটবলার রয়েছে। এই টুর্নামেন্টের জন্য নিবন্ধন করেছে ৩৩ জন। যার মধ্য থেকে আমরা ২৩ জনকে বাছাই করে নেয়া হয়েছে। তাছাড়া এই দলে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা নয়জন ফুটবলার রয়েছে। এরা হল- শামসুন্নাহার জুনিয়র, রুপনা চাকমা, ইয়াসমিন আক্তার, সোহাগী কিসকু, রোজিনা আক্তার, শাহেদা আক্তার রিপা, রেহেনা আক্তার, নওশিন জাহান ও রুমি আক্তার। এছাড়া উন্নতি খাতুন, নাসরিন আক্তার, আফিদা খন্দকার, মেহেরুন আক্তার, সুরমা জান্নাত, পুর্ণিমা রানী মন্ডল ও স্বপ্না রানী- এই সাতজন সম্প্রতি ভারতে সুব্রত কাপে খেলে আসা ফুটবলার।’

ছোটন যোগ করেন, ‘এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের চুড়ান্ত পর্ব শেষে থাইল্যান্ড থেকে এসেই এই দলটিকে নিয়ে নিবিড় প্রশিক্ষণ করিয়েছি। কারণ টুর্নামেন্টটি আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। নতুনদের নিয়ে আমি এই চ্যালেঞ্জে জিততে চাই।’

বাংলাদেশ ছাড়াও টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে ভারত, নেপাল ও স্বাগতিক ভুটান। ৯ অক্টোবর স্বাগতিক ভুটান, ১১ অক্টোবর নেপাল ও ১৩ অক্টোবর ভারতের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। লিগ ভিত্তিক টুর্নামেন্টের সেরা দুই দল ১৫ অক্টোবর ফাইনাল খেলবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাফ ফুটবল
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ