Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

লাশ নিতে ঢাকার পথে আবরারের বাবা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:১৮ পিএম

‘ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে বিদেশে গিয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্ন ছিল আবরার ফাহাদের। মৃত্যু তার সেই স্বপ্নকে পূরণ হতে দিল না।’ সোমবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গের সামনে দাঁড়িয়ে নিহত বুয়েট শিক্ষার্থী আবরারের মামাত ভাই জহুরুল ইসলাম কথাগুলো বলছিলেন।

জহুরুল ইসলাম বলেন, অনেক মেধাবী ছাত্র ছিল আবরার। কুষ্টিয়া থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে এসএসসি পাস করে, এরপর ঢাকার নটর ডেম কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে বুয়েটের তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগে ভর্তি হয়। তার মৃত্যুতে শুধু পরিবারের সদস্যদের মধ্যে নয়, এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

তিনি বলেন, খুবই ভালো স্বভাবের ছিল আবরার। বাড়িতে থাকাকালীন বাইরে খুব কম যেত, পরিবারের সদস্য, আত্মীয়-স্বজন ছাড়া বাইরের লোকের সঙ্গে খুব কম মিশত। বইপড়া ছিল তার একমাত্র পছন্দের কাজ। তার সংগ্রহে পাঠ্যবইয়ের বাইরেও বিভিন্ন ধরনের বাংলা-ইংরেজি বই রয়েছে।

জহুরুল ইসলাম জানান, আবরারকে কুষ্টিয়ায় গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হবে। মরদেহ নিতে তার বাবা ঢাকার উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন।

তিনি জানান, আবরারের বাবা মোহাম্মদ বরকতুল্লাহ একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন, মা গৃহিণী। পরিবারে তাদের দুই সন্তান। আবরারের ছোট ভাই ঢাকা কলেজে একাদশ শ্রেণির ছাত্র।



 

Show all comments
  • ইয়াসমিন ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:১২ পিএম says : 0
    এই ছাত্র কে মেরে ফেলা হচ্ছে কেন এই পরিস্থিতি বিচার চাই
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাম্মদ.ইকবাল হোসেন (রিফাত)। ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:১৭ পিএম says : 0
    "আসসালামু আলাইকুম"
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আবরার হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ