Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

মামলা করতে এসে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

ময়মনসিংহে বিধবাসহ শিকার আরো ৩ : আটক ৩

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ঝালকাঠিতে মামলা করতে এসে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ। হত্যার হুমকি দিয়ে টানা ১৬ দিন ধরে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে জানান গৃহবধূ। ময়মনসিংহে ধারালো ছুরির ভয় দেখিয়ে বিধবাকে রাতভর ধর্ষণ করা হয়েছে। খুলনায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাক প্রতিবন্ধীকে ও মাদারীপুরে শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে, বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ মামলায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
ঝালকাঠি : পারিবারিক কলহে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করতে এসে প্রতারকের খপ্পরে পড়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ (২৮)। আইনি সহায়তার কথা বলে বাসায় নিয়ে আটকে বটি দিয়ে খুন করার ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শাওন মোল্লা ওরফে সোহাগ (৩৫) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে রবিবার রাতে ঝালকাঠি থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন নির্যাতিত ওই নারী। শাওন মোল্লা ঝালকাঠি সদর উপজেলার গাবখান এলাকার মৃত আয়নাল মোল্লার ছেলে।

অভিযোগে জানা য়ায়, ঝালকাঠি সদর উপজেলার লালমোন গ্রামের এক নারীর সঙ্গে তাঁর স্বামীর বিরোধ সৃষ্টি হয়। স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করতে তিনি গত ১৩ ফেব্রæয়ারি আদালতে যান। সেখানে দেখা হয় পূর্বপরিচিত শাওন মোল্লার সঙ্গে। শাওন মোল্লা ওই নারীকে আইনি সহায়তার পাশাপাশি বিরোধ নিস্পত্তির কথা বলে শহরের কাঠপট্টি ট্রলারঘাট এলাকায় তার ভাড়া করা বাসায় নিয়ে যায়। স্বামীর সঙ্গে বিরোধ নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত শাওন মোল্লা তার বাসায় ওই নারীকে থাকতে বলেন। দুই দিন পরে শাওন মোল্লা তার স্ত্রীকে শশুর বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। রাতেও শাওন মোল্লা বাসায় আসলে ওই নারীকে বটি গলায় ধরে হত্যার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে। রাতভর ধর্ষণের পরে সকালে ওই নারী বাড়ি ফিরে যেতে চাইলেও শাওন তাকে যেতে দেয়নি। পরে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৬ দিন পর্যন্ত নিয়মিত ধর্ষণ করে শাওন মোল্লা। কিন্তু পরবর্তীতে শাওন মোল্লা ওই নারীকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়।
নির্যাতিত ওই নারী বলেন, সহায়তার কথা বলে সে তার বাসায় নিয়ে আমাকে আটকে ফেলে। আমাকে খুন করার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করে। স্বামীর সঙ্গে কলোহের সুযোগ নিয়ে সে আমাকে বিয়ে করার স্বপ্ন দেখায়। কিন্তু আমাকে বিয়ে না করে প্রতারণার আশ্রয় নেয়। এখন আমাকে এ বিষয়ে কারো সঙ্গে কথা না বলার জন্য হুমকি দিচ্ছে।
ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু তাহের মিয়া বলেন, ভুক্তভোগী এক নারী শাওনা মোল্লার বিরুদ্ধে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন। শাওন মোল্লাকে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চলছে। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য শাওন মোল্লার মুঠোফেনে কল করা হলেও তিনি কল গ্রহণ করেননি।

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) : ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলায় দুই সন্তানের জননী এক বিধবা নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। জানা যায়, উপজেলার বওলা ইউনিয়নের চন্দ্রপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে গত রবিবার রাত ২টায় ধর্ষিতার ঘরে প্রবেশ করে ধারালো ছুরি দিয়ে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে রাতভর তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে রবিবার রাতে ফুলপুর থানায় মামলা করেন। পুলিশ রাতেই ধর্ষণকারীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ধর্ষণকারীর নাম আব্দুল মোমেন খাঁ (৫০)। সে পার্শ্ববর্তী কোকাইল গ্রামের মৃত মেরাজ খাঁর ছেলে। ধর্ষিতার পরিবার ও থানা স‚ত্রে জানা যায়, মধ্যেবয়সী ওই নারীর স্বামী আব্দুস সালাম প্রায় ৬ বছর আগে দুই মেয়ে রেখে মারা যান। অভাবের সংসারের হাল ধরতে ধর্ষিতা ওই নারী ঢাকায় একটি বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করেন। নিজ মায়ের অসুস্থতার খবর শুনে তিনি কয়েকদিন আগে গ্রামের বাড়িতে আসেন। ধর্ষিতার মা ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন। গত রবিবার গভীর রাতে ঘরের টিনের দরজা ফাঁক করে মোমেন খাঁ ধারালো ছুরি হাতে নিয়ে ও তার মুখ চেপে ধরে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে রাতভর ধর্ষণ করে। এমন অবস্থায় তার দুই মেয়ে ঘটনাটি টের পান। ধর্ষণকারী তাদেরকে ভয়-ভীতি দেখায় এবং এ ঘটনাটি কাউকে জানানো হলে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায়। ফুলপুর থানার ওসি ইমারত হোসেন গাজী জানান, এ ব্যাপারে ধর্ষিতা নিজেই ফুলপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

মাদারীপুর : মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়নের কমলাপুর আশ্রমের পাশে ভ্যান গ্যারেজের ভিতরে এক শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল দুপুরে ঐ কিশোরীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
পুলিশ, স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাজৈর উপজেলার পাখুল্লা গ্রামের কমল বেপারীর ছেলে ভ্যান চালক আকাশ বেপারী (২০) ও তার সহযোগী ইব্রাহীম শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে পূজা দেখার কথা বলে ফুসলিয়ে রোববার গভীর রাতে রাজৈর উপজেলার কমলাপুর আশ্রমের পাশে একটি ভ্যান গ্যারেজের ভিতর নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে থানা পুলিশ গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।
খুলনা : খুলনা নগরীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৫) একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত রোববার গভীর রাতে দৌলতপুরের মহেশ্বরপাশা এলাকা থেকে ইমন (২২) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইমন দৌলতপুরের মহেশ্বরপাশা দিঘিরপাড় এলাকার বাসিন্দা। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোস্তাক আহমেদ রাইজিংবিডিকে জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ করে ইমন। এ ঘটনায় রোববার মেয়েটির বাবা মামলা করলে রাতেই ইমনকে গ্রেফতার করা হয়।



 

Show all comments
  • Engr Md Saidur Rahman ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ২:০৩ এএম says : 0
    এদের কাছে কোন মা বোন নিরাপদ না তাই এদের কে যথোপুক্ত প্রমান সাপেক্ষে বিচার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • জাহিদ ফেনী ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ২:০৪ এএম says : 0
    আফসোস,, কোথায় আমাদের বিচার!!! আর কতদিন নাকে তৈল দিয়ে ঘুমাবে!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Shafiquzzaman Biswas ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ২:০৫ এএম says : 0
    একটা বুলেটের দাম কি খুব বেশি ? ওর মতো জানোয়ারের বেচে থাকার কোন অধীকার নেই। ওর বোনেরও বেচে থাকার অধিকার নেই।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Nurul Amin ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ২:০৫ এএম says : 0
    এইসব ধর্ষককে প্রকাশে জনসম্মুখে শাস্তি দেওয়া হলে অনেক আংশে ধর্ষনের মতো এই সব জঘন্য ঘটনা কমে যেতো।কিন্তু আপসোস আমাদের দেশে সেই ভাবে ধর্ষনের কোনো কঠিন বিচার হয় না। তাই প্রতিনিহত দেশে ধর্ষনের প্রবণতা বাড়তেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • M Rahman ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ২:০৬ এএম says : 0
    সামাজিক অশান্তি ও নৈতিক মূল্যবোধের চরম অবক্ষয় বাড়ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ আরিফ খলিফা ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১১:০১ এএম says : 0
    ধর্ষন চাঁদাবাজি ও দুর্নীতিমুক্ত শান্তিময়ূ সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে হলে ইসলামি জীবন ব্যাবস্থার বিকল্প নেই..(পির সাহেব চরমোনাই)
    Total Reply(0) Reply
  • মজলুম আহমেদ ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:১৭ পিএম says : 0
    ইসলাম নাই যেখানে, শান্তি নাই সেখানে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ


আরও
আরও পড়ুন