Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ফেসবুকে যা লিখেছিলেন আবরার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ছাত্রলীগের বর্বর নির্যাতনে নিহত হওয়ার ৮ ঘণ্টা আগে ভারতকে সমুদ্র বন্দর, পানি ও গ্যাস দেয়ার চুক্তির বিরোধিতা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ। শনিবার বিকেল ৫টা ৩২ মিনিটে ওই স্ট্যাটাস দেন তিনি।

স্ট্যাটাসে ফাহাদ লেখেন, ৪৭-এ দেশভাগের পর দেশের পশ্চিমাংশে কোনো সমুদ্রবন্দর ছিল না। তৎকালীন সরকার ছয় মাসের জন্য কলকাতা বন্দর ব্যবহারের জন্য ভারতের কাছে অনুরোধ করল। কিন্তু দাদারা নিজেদের রাস্তা নিজেদের মাপার পরামর্শ দিছিল। বাধ্য হয়ে দুর্ভিক্ষ দমনে উদ্বোধনের আগেই মংলা বন্দর খুলে দেয়া হয়েছিল। ভাগ্যের নির্মম পরিহাস আজ ইন্ডিয়াকে সে মংলা বন্দর ব্যবহারের জন্য হাত পাততে হচ্ছে।
তিনি আরও লেখেন, কাবেরি নদীর পানি ছাড়াছাড়ি নিয়ে কানাড়ি আর তামিলদের কামড়া-কামড়ি কয়েকবছর আগে শিরোনাম হয়েছিল। যে দেশের এক রাজ্যই অন্যকে পানি দিতে চায় না, সেখানে আমরা বিনিময় ছাড়া দিনে দেড়লাখ কিউসেক মিটার পানি দেব।
ভারতকে গ্যাস দেয়ার সমালোচনা করে তিনি লেখেন, কয়েকবছর আগে নিজেদের সম্পদ রক্ষার দোহাই দিয়ে উত্তর ভারত কয়লা-পাথর রফতানি বন্ধ করেছে অথচ আমরা তাদের গ্যাস দেব। যেখানে গ্যাসের অভাবে নিজেদের কারখানা বন্ধ করা লাগে সেখানে নিজের সম্পদ দিয়ে বন্ধু বাতি জ্বালাব। স্ট্যাটাসের শেষ তিনি কবি কামিনী রায়ের একটি কবিতা জুড়ে দিয়ে লেখেন, হয়তো এ সুখের খোঁজেই কবি লিখেছেন- ‘পরের কারণে স্বার্থ দিয়া বলি এ জীবন মন সকলি দাও; তার মত সুখ কোথাও কি আছে আপনার কথা ভুলিয়া যাও।’



 

Show all comments
  • Md Mahabul Islam ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১২ এএম says : 0
    যখনই কাউকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় তখনই শোনা যায় যে সিসিটিভি ফুটেজ নষ্ট। রিফাত হত্যার সময় বলেছিলেন কিছুদিন আগে সিসিটিভি ফুটেজ নষ্ট হয়ে গেছে কিন্তু পরে সব তথ্য নিয়ে জানা যায় তারা এগুলো হাইড রেখেছিলেন তেমনি আজকেও তারা বলছেন সিসিটিভি ফুটেজ কি নষ্ট হয়ে গেছে। ফাহাদ হত্যার সঙ্গে জড়িতদের ধরা মাত্র ক্রসফায়ার দেওয়া উচিত এটা দেখে পরবর্তীতে যেন কেউ এমন অপরাধ না করতে পারে এদের আইনের আওতায় নিয়ে জেল দিলে পুনরায় কোনো প্রভাবশালী লোকের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে তাই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের ক্রসফায়ার দেয়া হোক
    Total Reply(0) Reply
  • Tasnim Sultana Bushra ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৩ এএম says : 0
    কোমর থেকে পা পর্যন্ত থেঁতলানো ছিলো আবরারের।আহারে কি কষ্টটাই না পেয়েছে ছেলেটা মৃত্যুর আগে।মনে হচ্ছে ভারী কিছু অথবা হাতুড়ি দিয়েই তাকে মারা হয়েছে।কিভাবে মানুষ এতোটা বর্বর পশুর মতো আচরণ করতে পারে?যারা এইভাবে আবরারকে হত্যা করলো তারাওতো বুয়েটের মেধাবী ছাএ ছিলো। মানুষ এখন জানতে চায় কোন রাজনীতি করার কারণে তারা এই অমানুষে পরিনত হয়েছে?এই রাজনীতি কি আদৌ সাধারণ মানুষ চায়?
    Total Reply(0) Reply
  • S M Taj Uddin ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
    আবরার, মাফ করে দিস্ ভাই, আমরা আসলেই অভাগা-ভীতু একটা জাতি! তোর জন্যে কিছুই করতে পারবো না৷ আর তুই বেঁচে থাকলেই আমাদের দেশের কি লাভ হতো? বুয়েটের মেধাবীরা কেউ দেশে থাকে না, এদেশে মেধার কোন দাম নাই! তোকেও হয়তো স্কলারশিপ নিয়ে আমেরিকা, কানাডায় চলে যেতে হতো! দূরেতো যেতেই হতো একটু আগেই না হয় গেলি৷ তোর ফেসবুকের শেষ কয়েকটা পোস্ট দেখলাম, কেন এসব লিখতে গেলি? জানিস না দেশটা এখন কারা চালায়? আর লিখতে পারলাম না, চোখে কেন জানি মোবাইলের স্ক্রীনটা ঘোলা দেখছি! ভালো থাকিস ভাই ওপারে!
    Total Reply(0) Reply
  • Imtiaz Mamun ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
    ভারতের আধিপত্যবাদ বিরুধী লড়াইয়ের প্রথম শহীদ। ভারতীয় রাজাকারদের হাতে আবরারের নির্মম মৃত্যু হয়। সে নব্য রাজাকারের হাতে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা। সে কোন দলের এজেন্ডা বাস্তবায়নের লোক নয়, সে প্রকৃত দেশপ্রেমিক।
    Total Reply(0) Reply
  • Sorwar Ahmed ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
    কতটুকু অশ্রু গড়ালে হৃদয় জলে সিক্ত কত প্রদীপ শিখা জ্বালালেই জীবন আলোয় উদ্দীপ্ত কত ব্যথা বুকে চাপালেই তাকে বলি আমি ধৈর্য নির্মমতা কতদূর হলে জাতি হবে নির্লজ্জ আমি চিৎকার করে কাঁদিতে চাহিয়া করিতে পারিনি চিৎকার।
    Total Reply(0) Reply
  • Sohel Tanvir ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
    তীব্র অান্দোলন গড়ে তুলুন। “এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময় এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়”
    Total Reply(0) Reply
  • Foez Ahmed ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
    এ জাতীয় নির্মম, নিসঠুর,জগন্য হত্যাকান্ডের সঠিক বিচার যাতে কোন অজুহাতেই থমকে না যায় সেদিকে কতৃপক্ষের সুদৃস্টি কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • Muhammad Shafiuddin ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
    খুনিদের যেখানে পাওয়া যাবে সেখানেই গনপিটুনী দিয়ে মেরে ফেলতে হবে, নইলে তারা বিশ্বজিৎ হত্যার মতো মুক্তি পেয়ে যাবে,, আমরা আর কোন প্রহসনের বিচার দেখতে চাইনা
    Total Reply(0) Reply
  • Parvez Khan ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
    আজকে ফাহাদ কালকে অন্য কেউ তার পরেরদিন হয়তোবা আমার ছোট ভাই এভাবে আর কতকাল চলবে আর কতদিন চলবে এর কি একটা কিছু হবে না হবে ইনশাআল্লাহ আল্লাহ তুমি সহায় হও সাধারণ মানুষকে তুমি মুক্তি দাও আর সেদিন হয়তোবা আমরা এবার দেশটাকে সুন্দর করে দেশের মানুষের সাথে সুন্দর ভাবে চলাফেরা করবে করবে ইনশাআল্লাহ সেদিন আর বেশি দূরে নয় সামনে শুভদিন আসতেছি ইনশাআল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Robin Aziz ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
    কেউ ভিন্ন মত দিলেই তাকে শিবির বানানো, এটা ছাত্র লীগের চরিত্রে পরিনত হয়েছে। তাদের অন্যায়ের যেই প্রতিবাদ করবে সেই মরবে। আর যারা প্রতিবাদ না করে ভাবছে আমরা বেঁচে গেছি তাদের জন্য একই পরিনতি অপেক্ষা করছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Aklima Jahan Shimu ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
    মেধাবী হওয়ার চাইতে ভালো মানুষ হওয়া যে অনেক বেশি জরুরী তা এইসব বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলে মেয়েরা বার বার মনে করিয়ে দেয়। যারা বাবা-মা'র কোল থেকে তার বাচ্চাকে ছিনিয়ে নেয় তারা যত মেধাবীই হোক না কেন ভালো মানুষ হয়নি, হতে পারে না।
    Total Reply(0) Reply
  • M.jahangir ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৫:০৩ এএম says : 0
    সি সি টিভি থাকা সত্বে ও একজন মেধাবী ছাত্রের এমন নির্মম মিত্যু? কি নির্মম ঘটনা,বুয়েটের মত জায়গায়?কত বড় জানোয়ার হলে এমন ঘটনা ঘটাতে পারে?আর এই জানোয়ারদের ইন্দন দেয় কারা?একটা স্বাধীন দেশে কি জানের এতই নিরাপত্তা নাই?তোমার ফেসবুকের শেষের কয়েকটা পোস্ট দেখলাম ভাই।সত্যেই যদি এটা তুর মৃত্যেুর কারণ হয়,তাহলে তুমি জান্নাতের জন্য অপেক্ষা কর ভাই।কিছু লিখতে ভয় হয় এই জুলুমের রাষ্টে,তার পরে ও না লিখে পরলাম না, কখন জানি আমার জানটা ও নিয়ে যায়?
    Total Reply(0) Reply
  • Rakibul Hasan ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৪ পিএম says : 0
    একটা দেশ কি এভাবে চলতে পারে, মানুষ মেরে কিসের সুখ??
    Total Reply(0) Reply
  • M.jahangir ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:২৩ এএম says : 0
    কি নির্মম ঘটনা? কি নির্মম মৃত্যু? বাংলাদেশের মত একটা স্বাধীন দেশে? এরকম স্বাধীনতার তো কোনো মানে হয়না? কত বড় জানোয়ার হলে এরকম ঘটনা ঘটাতে পারে?আরো বুয়েটের মত প্রতিষ্টানে? আর এসব হিংস্র জানোয়ারদের ইন্দন দেয় কারা জানতে ইচ্ছে করে। তোর জন্য কিছু করতে পারব না ভাই। ও পারে ভাল থাকিস,তোর ফেসবুকের শেষের কয়েকটা পোস্ট দেখলাম,এটা যদি তোমার মৃত্যুর কারণ হয় ভাই,তা হলে তুমি জান্নাতের জন্য অপেক্ষা কর ভাই,কিছু লিখতে ভয় লাগে ভাই,অন্তত তোমার লাশটা না হয় পেয়েছে স্বজনেরা,আমারটা ত ঘুম হয়ে যাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Abdus Sattar ২ জুলাই, ২০২০, ৫:৫৭ পিএম says : 0
    এই মেধাবী গরুর বাচ্চাদের দেশ থেকে মেরে উৎখাত করা দরকার না হলে দেশে শান্তি আসবে না।ভাই আবরার আমাকে মাফ কর।আমি তোমার জন্য একটা থাপ্পরও দিতে পারলাম না এসব কুত্তাদের।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ