Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফায়াজকে মারধর করেছে পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:০২ পিএম

বুধবার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় রায়ডাঙ্গা গ্রামে যান বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। সেখানে ভিসিকে বাধা দেয় গ্রামবাসী। পরে এলাকাবাসীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। এ সময় আবরারের ছোট ভাই আবরার ফায়াজকে মারধর করেছে পুলিশ। এছাড়া পুলিশের এই সংঘর্ষ অবরারের ফুপাতো ভাইয়ের স্ত্রী ও আরও একজন নারী আহত হন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বুয়েট ভিসি আবরারের কবর জিয়ারত করতে পেরেছেন। তবে আবরারের বাড়িতে ঢুকতে পারেননি। আবরারের ভাই ও বাবার প্রশ্নবানে জর্জরিত হন উপাচার্য। তাদের জিজ্ঞাসা ছিল, উপাচার্য কেন ওই হত্যাকাণ্ডের পরপর সেখানে উপস্থিত হননি। এখন কেন এসেছেন?

এ অবস্থায় আবরারের বাড়িতে ঢোকার সময় উপাচার্যকে বাধা দেয় গ্রামবাসী। আবরারের বাড়ি ঢোকার মুখে ভিসির গাড়ির সামনে শুয়ে পড়েন নারীরা। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে আবরারের ছোট ভাই আবরার ফায়াজসহ পাঁচজন আহত হন।

রায়ডাঙ্গা গ্রামে গিয়ে আবরারের কবর জিয়ারত ও তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করার কথা ছিল ভিসির। এ খবরে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল পরিমাণ সদস্য মোতায়েন করা হয়। আবরারের বাড়ির পাশে ও কবরের আশপাশ এলাকায় অসংখ্য র‌্যাব ও পুলিশ অবস্থান নেয়।

গত রোববার রাতে বুয়েটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে ডেকে নিয়ে যায় ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী। এরপর তাকে শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।



 

Show all comments
  • দীনমজুর কহে ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:৪৪ পিএম says : 0
    * ঘটনাটি নিছক অনাখাংখিত * খ্খোভের বহিঃপ্রকাশ **
    Total Reply(0) Reply
  • Hafez Abdullah ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৪৯ পিএম says : 0
    ছাত্রলীগের রাজনিতি নিষিদ্ব করা হোক- অন্যথায় সকল শিক্ষালয়ের সকল কার্জক্রম বন্ধ থাকবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jafar Islam ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৫০ পিএম says : 0
    আজকে কুষ্টিয়া থেকে সকল ভিসি কে শিক্ষা নেওয়া দরকার। ধন্যবাদ কুষ্টিয়া বাসী।
    Total Reply(0) Reply
  • Tanvir Ahmed Siddiqi ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৫০ পিএম says : 0
    ছাত্রদল-ছাত্রলীগ হতে শুরু করে প্রতিটি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দূর করা হোক। আমরা আর কোন আবরারের লাশ দেখতে চাই না
    Total Reply(0) Reply
  • Md Azahar Ali ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৫০ পিএম says : 0
    যারা শোকে কাতর তাদের লাঠি দিয়ে শায়েস্তা করা এতটাই প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল !!??
    Total Reply(0) Reply
  • Monir Chowdhury ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৫০ পিএম says : 0
    তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। তারা এমনিতেই শোকাহত.সেখানে পুলিশের এ আচরন গ্রহনযে।গ্য নয়।
    Total Reply(0) Reply
  • Maruf Uddin Nirub ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৫১ পিএম says : 0
    শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড,। ছাত্র রাজনীতি জাতির মৃত্যুদণ্ড!
    Total Reply(0) Reply
  • Hannan Kabir ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৫১ পিএম says : 0
    Fayaz proved himself as he is brother of Fahad who was the real patriotic person in Bangladesh.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আবরার হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ