Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

এবার যুবমহিলা লীগ নেত্রীকে ধর্ষণ করল ছাত্রলীগ নেতা

সোনাইমুড়ীতে শিশুকে গণধর্ষণসহ শিকার ৩ আটক ৫

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০১ এএম | আপডেট : ১২:০৪ এএম, ১০ অক্টোবর, ২০১৯

এবার সিদ্ধিরগঞ্জে যুবমহিলা লীগ নেত্রীকে ধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ নেতা। সোনাইমুড়ীতে শিশুকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় গান শেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া নবীগঞ্জে হোটেলের রাধুনী ও কলাপাড়ায় কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে, বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ মামলায় ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জ : সিদ্ধিরগঞ্জে যুব মহিলা লীগ নেত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার ওই যুব মহিলালীগ নেত্রী বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। মামলার প্রধান আসামি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সাবেক সদস্য শরিফুর রহমান পারভেজ (৪৫)। তবে বর্তমানে সে নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয় দেয়।
এদিকে ধর্ষণে সহযোগিতা করায় সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার এলাকার নুরু সেক্রেটারির ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৪৬)কে মামলায় দুই নাম্বার আসামি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই যুব মহিলা লীগ নেত্রীর সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে মিজিমিজি আবদুল আলী পুল এলাকার আবদুর রহমানের ছেলে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শরিফুর রহমান পারভেজ। এতে ওই নারী নেত্রী দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে সে বিয়ে করার কথা বললে অস্বীকৃতি জানায় পারভেজ। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার (ওসি) কামরুল ফারুক জানান, পারভেজের বিরুদ্ধে মামলা নেয়া হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় গান শেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে ষষ্ঠ শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয়ভাবে ‘সাধু বাবা’ নামে পরিচিত হবিবার ফকিরের (৬০) বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ডাউকি গ্রামে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে ওই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। এ ধর্ষণের ঘটনায় সহযোগিতা করার অপরাধে হাজেরা খাতুন নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

অভিযোগে প্রকাশ, ডাউকি গ্রামের বিশ্বাসপাড়ার মৃত ইয়াছিনের ছেলে হবিবার দীর্ঘদিন ধরে নিজ বাড়িতে ফকিরের আড্ডাখানা চালিয়ে আসছেন। এরই জের ধরে বিভিন্ন এলাকার নারীদের নিয়ে তিনি গান-বাজনা করতেন। ছয় মাস আগ থেকে কথিত এ ‘সাধু বাবা’ হবিবার ফকিরের নাতনি সম্পর্কের ওই স্কুলছাত্রী বিভিন্ন সময় তার বাড়িতে যাতায়াত করতো। এ সুযোগে ভয়ভীতি দেখিয়ে তিনি ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে আসছেন। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার রাতে ওই স্কুলছাত্রীর উপস্থিতিতে তার বাবা বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ধর্ষকের সহযোগী হাজেরা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। এ সময় ফকির হবিবার ও তার সহযোগী ছকিনা খাতুন পলাতক আছেন।

নোয়াখালী : সোনাইমুড়ী উপজেলার আমিশাপাড়া ইউনিয়নে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৩) কে গণধর্ষণ করেছে তিন বখাটে। ঘটনায় ভিকটিমের মায়ের দায়ের করা মামলায় সজিব ও রাজন নামের দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গতকাল বুধবার দুপুরে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এরআগে সকালে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে তিনজনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার মিরপুর থানা পুলিশ চতুর্থ শ্রেণির এক শিশু শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানি মামলার পলাতক আসামি শফিকুলকে (৩০) আটক করেছে। গত মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সালাহ উদ্দিন খাঁন সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপজেলার ছাতিয়ান ইউনিয়নের আটিগ্রাম বোনের বাসা থেকে শফিকুলকে আটক করেন। এর আগে কুষ্টিয়ার মিরপুরে চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১১) মাঠে ছাগল চরানোর সময় যৌন নির্যাতনের চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটে।

কলাপাড়া : ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ নুর মিয়া (৩৫) নামের এক শ্রমিককে গ্রেফতার করেছে। মহিপুর থানা পুলিশ ও ধুলাসার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল আকনের দেয়া তথ্যানুসারে নয়াকাটা গ্রামের দরিদ্র পরিবারের ওই কিশোরীকে ঘরে একা পেয়ে গতকাল বুধবার সকাল আনুমানিক নয়টার দিকে পড়শি বিবাহিত নুর মিয়া জোরপুর্বক ধর্ষণ করে। চৌকিদার ও স্থানীয়রা নুর মিয়াকে পাকড়াও করে ফেলে।
নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) : হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ শহরের নতুন বাজার এলাকা থেকে নিপেশ দাশ নামের এক হোটেল কর্মচারীকে একই হোটেলের রান্নার কাজে নিয়োজিত মহিলা কর্মচারীকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত কর্মচারী বানিয়াচং উপজেলার ধানপুড়া গ্রামের মৃত করুণা দাশের ছেলে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার বিকালে ২ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন।



 

Show all comments
  • SHAIKH MARUF HASAN ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:৫০ এএম says : 0
    দুজনের সম্মতিতে যৌন মিলনকে ধর্ষণ বলার যৌক্তিকতা কতটুকু? তবে এ দের উভয়েরঃ বিচার হওয়া উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২১ এএম says : 0
    নিজ দলের নেত্রীকেই ধর্ষন?!!!!!! হায় রে আওয়ামী লীগ! খারাপের কোন দিকই বাদ রাখবে না এরা।
    Total Reply(0) Reply
  • Nahid-ul Karim ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২১ এএম says : 0
    আহা ছাত্রলীগ!! আওয়ামীলীগ এর যোগ্য মুখপাত্র, অন্তর্কোন্দলের পর অন্তঃধর্ষণ, এরাই পারে এবং পারবে
    Total Reply(0) Reply
  • Shafiquzzaman Biswas ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২২ এএম says : 0
    একটা বুলেটের দাম কি খুব বেশি ? ওর মতো জানোয়ারের বেচে থাকার কোন অধীকার নেই।
    Total Reply(0) Reply
  • Abdus Salam ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২২ এএম says : 0
    এদের ক্রস ফায়ার দেওয়া উচিৎ কোন বিচার ছাড়াই।
    Total Reply(0) Reply
  • M Rahman ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২২ এএম says : 0
    সামাজিক অশান্তি ও নৈতিক মূল্যবোধের চরম অবক্ষয় বাড়ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Nurul Amin ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২৩ এএম says : 0
    এইসব ধর্ষককে প্রকাশে জনসম্মুখে শাস্তি দেওয়া হলে অনেক আংশে ধর্ষনের মতো এই সব জঘন্য ঘটনা কমে যেতো।কিন্তু আপসোস আমাদের দেশে সেই ভাবে ধর্ষনের কোনো কঠিন বিচার হয় না। তাই প্রতিনিহত দেশে ধর্ষনের প্রবণতা বাড়তেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Anwar Anwar ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:২৪ এএম says : 0
    এই কোন দলের হতে পারে না মানুষ নামের জানোয়ার এদের মত চরিত্রহীন মানুষের কারণে আওয়ামীলীগের বদনাম হয়
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ