Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার , ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১২ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

মাহাথির কাশ্মির নিয়ে অবস্থান বদলাবেন না

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৪ পিএম

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেছেন, তিনি কাশ্মির ইস্যুতে নিজের অবস্থান বদলাবেন না এবং এ ব্যাপারে কোনো চাপের কাছে নত হবেন না। মঙ্গলবার রাজধানী কুয়ালালামপুরে পার্লামেন্টারি লবিতে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এসব কথা জানান মাহাথির মোহাম্মদ।

ভারত সরকার কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা (স্বায়ত্তশাসন) বাতিল করার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। একই সাথে জাতিসঙ্ঘে প্রদত্ত ভাষণে ভারত কাশ্মিরিদের আক্রমণ করে জম্মু এবং কাশ্মির দখল করেছে বলে মন্তব্য করেছিলেন। কাশ্মির নিয়ে এমন মন্তব্যের পর ভারতীয় চাপ আসতে শুরু করেছে। তবুও এই চাপে নতিস্বীকার করে কাশ্মির নিয়ে নিজের অবস্থান বদলাতে চান না তিনি।

তিনি বলেন, কারো পক্ষ হয়ে আমরা সমালোচনা ত্যাগ করছি না। কিন্তু দুই পক্ষকে আলোচনার আহ্বান জানাচ্ছি। সহিংসতার আশ্রয় না নিয়ে মীমাংসা কিংবা আদালতে যেতে বলেছি।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতিসঙ্ঘের প্রস্তাব অনুসারে কাশ্মির সঙ্কটের সমাধান টানতে হবে। সহিংসতার আশ্রয় না নিয়ে আলোচনা, সালিসি ও আদালতের মাধ্যমে সঙ্কটের সমাধান করাই হচ্ছে আমাদের নীতি।

তিনি আরো বলেন, জম্মু ও কাশ্মির নিয়ে জাতিসঙ্ঘের প্রস্তাব থাকা সত্ত্বেও ভারত সেখানে হানা দিয়েছে এবং দখলদারিত্ব কায়েম করেছে। সমস্যার সমাধান করতে ভারতের উচিত পাকিস্তানের সাথে আলোচনা করা। জাতিসঙ্ঘকে তুচ্ছ করার মধ্য দিয়ে তা জাতিসঙ্ঘ ও আইনের শাসনের প্রতি আরেক ধরনের অবজ্ঞাকরণের দিকে নিয়ে যাবে।

তার ওই বক্তব্যের পর ভারতীয় উগ্র হিন্দুত্ববাদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমর্থকরা সামাজিকমাধ্যমে বয়কট মালয়েশিয়া প্রচার চালিয়েছেন। তবে মাহাথির বলেন, জাতিসঙ্ঘে তার দেয়া ভাষণের প্রেক্ষাপটে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে কোনো বার্তা তাদের কাছে আসেনি। তিনি বলেন, এযাবৎ আমার কাছে কোনো প্রতিক্রিয়া আসেনি। মোদিকে আমি বলেছি- তার যদি কোনো অসন্তোষ থাকে, তবে আমার সাথে যোগাযোগ করতে। সূত্র : মালয়মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মির ইস্যু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ