Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

নান্দাইলে একটি পরিবারকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর ইউনিয়নের বাড়ঘড়িয়া গ্রামের একটি পরিবারকে নিজ বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করেছে প্রতিপক্ষ। সরেজমিন এবং এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বাড়ঘড়িয়া গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের পুত্র ওমর ফারুক দীর্ধদিন ধরে দুবাই প্রবাসী। তার স্ত্রী নাছিমা আক্তার (৩৬) ছেলে মেয়েসহ বৃদ্ধ শ্বশুরকে নিয়ে নিজ বাড়িতে বসবাস করত। নাছিমার পরিবারটিকে নিরিহ পেয়ে তারই চাচাত ভাসুর মুজিবুর রহমান ও তার ভাইরেরা বিভিন্ন ভাবে হয়রানী শুরু করে। বাড়ির আঙ্গিনা থেকে জোর পূর্বক ছোটবড় গাছপালা কেটে নেয়াসহ জমি বেদখল করে নিতে থাকে। এক পর্যায়ে নাছিমা তাদের এহেন বেআইনী কার্যকলাপের বাধা দিতে গেলে মারপিটসহ জীবন নাশের হুমকী দেয়। এসমস্ত ঘটনায় পরিপ্রেক্ষিতে নাছিমা খাতুন বাদী হয়ে নান্দাইল মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করে।

ডায়রি করার অপরাধে এর কিছু দিন পরই মুজিবুর রহমান ও তার সহযোগীরা নাছিমা খাতুন ও তার পরিবারকে মারধোর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। প্রভাবশালী মুজিবুর রহমান গংদের বিরুদ্ধে স্থানীয়ভাবে ও আইনের মাধ্যমে কোন সহযোগিতা পায়নি। ফলে প্রায় এক বছরের উপরে পরিবারটি বাড়ি থেকে উচ্ছেদ হয়ে পাশবতী গ্রামে অন্যের আশ্রয়ে বসবাস করছে। গত ৯ অক্টোবর নাছিমার ঘর ভেঙে নিয়ে যাচ্ছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাড়ির বসত ঘর, রান্নাঘর ও গোয়লঘরসহ ছোটবড় গাছপালা কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এমনকি ঘর-বাড়ির অস্থিত্ব নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার জন্য ভিটের মাটিও কেটে নিয়ে যাচ্ছে। সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে মুজিবুর রহমান গাঁ ঢাকা দেয়।

এ ব্যাপারে মুজিবুর রহমানের স্ত্রী রিফাত আরা বলেন, পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত ভূমি এতে নাছিমাদের কোন স্বত্ত নেই। বাড়ি থেকে ভিটের মাটি কেটে উচ্ছেদের কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি কোন সঠিক উত্তর দিতে পারেনি। ভুক্তভোগী নাছিমা ও তার পরিবারের সদস্যরা সরকারের উর্দ্ধতন মহলের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
নান্দাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মনসুর আহম্মদ এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন