Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

ছয়টি এরিআই এইডবিøউএন্ডসি এয়ারক্রাফট পেল পাকিস্তান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

সুইডেনের সাব কোম্পানির কাছ থেকে কেনা ছয়টি এরিআই এয়ারবোর্ন আর্লি ওয়ার্নিং এন্ড কন্ট্রোল (এইডবিøউএন্ডসি) এয়ারক্রাফটের সবগুলোই হাতে পেয়েছে পাকিস্তান বিমান বাহিনী (পিএএফ)। পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা উৎপাদন মন্ত্রণালয়ের ২০১৭-১৮ ইয়ারবুকে এ তথ্য দেয়া হয়েছে। ২০১৭-১৮ সালে ৯৪.৯৫ মিলিয়ন ডলারে ষষ্ঠ ‘এরিআই এইডবিøউএন্ডসি’ এয়ারক্রাফট কেনার নির্দেশ দেয় প্রতিরক্ষা ক্রয় মহাপরিদফতর। সরকারি আমদানি-রফতানি নথিতে দেখা যায় যে, ২০১৮ সালের এপ্রিলে পিএএফ এরিআই কর্মস‚চি’র ফলো-অন শুরু করে। ২০১৯ সালের এপ্রিলে ডেলিভারি সম্পন্ন হয়। মনে হচ্ছে ২০১৮ সালের নভেম্বরে যে তিনটি এরিআই কেনা হয় শেষেরটি সেগুলোর সঙ্গে যোগ দিয়েছে। এই মুহ‚র্তে পিএএফের কাছে ছয়টি এরিআই থাকার বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেলো। পিএএফ ২০০৬ সালে চারটি ‘এরিআই এইডবিøউএন্ডসি’ কেনার অর্ডার দেয়। তারা ছয়টি কিনতে চাইলেও আর্থিক সমস্যার কারণে সেই পরিকল্পনা বাতিল করতে হয়। এরিআই কর্মস‚চির মোট ম‚ল্য ১.১৫ বিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে প্রশিক্ষণ, লজিস্টিক, খুচরা যন্ত্রাংশ, অন্যান্য আনুসঙ্গিক ব্যয় রয়েছে। একেকটি এরিআই এয়ারক্রাফটের দাম ৯৩ মিলিয়ন ডলারের মতো। ২০১২ সালে মিনহাজ বিমানঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার পর ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পিএএফ এই সাব-২০০০ এয়ারক্রাফটগুলোর জন্য একটি ব্যাপকভিত্তিক সাপোর্ট বেজ গড়ে তোলে। ক্ষতিগ্রস্ত বিমানগুলোকে মেরামতের উপযুক্ত করে এই ঘাঁটি গড়ে তোলা হয়। আকাশে নজরদারি ও সতর্কতার ক্ষেত্রে এরিআই পুরনো ব্যবস্থা হলেও তা পিএএফের জন্য একটি ব্যয় শাস্ত্রয়ী সমাধান। এসএএম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন