Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কাশ্মীরে সেনা কেন?

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

পাকিস্তানের কথিত সম্ভাব্য হামলার আশঙ্কায় কাশ্মীরে সেনা মোতায়েন করেনি বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার। তারা সেনা মোতায়েন করেছে কাশ্মীরের ভিন্নমতকে দমিয়ে রাখতে। এ অভিযোগ করেছেন জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। অফিসিয়াল টুইটার একাউন্টে পোস্ট করা এক পোস্টে তিনি এ কথা বলেছেন। মেহবুবা গৃহবন্দি হওয়ার পর ওই টুইট একাউন্টটির ব্যবস্থাপনায় রয়েছেন তার মেয়ে ইলতিজা মুফতি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ।

প্রথম টুইটে তিনি প্রশ্ন রেখেছেন, সবকিছু যদি স্বাভাবিক থাকে তাহলে কাশ্মীরে কেন ৯ লাখ সেনা সদস্য তার ব্যাখ্যা কি? পাকিস্তান থেকে হামলা হবে এই কারণে তারা কাশ্মীরে নন। তারা শুধু কাশ্মীরে অবস্থান করছেন প্রতিবাদ বিক্ষোভকে থামাতে। ভিন্নমত দমন করায় ব্যবহৃত হওয়ার পরিবর্তে সেনাবাহিনীর প্রথম দায়িত্ব হলো সীমান্তকে সুরক্ষিত রাখা। পরের এক টুইটে তিনি যোগ করেন, বিজেপি জওয়ান কার্ড ব্যবহার করছে ও তাদের ভোটাধিকার ছিনতাই করছে। কিন্তু প্রকৃত সত্য হলো, কাশ্মীরিদের যদি কামানের তোপ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, তাহলে কাশ্মীরে অসন্তোষ দমাতে সেনারা দাবার ঘুঁটিতে পরিণত হবেন। জওয়ান অথবা কাশ্মিেীদর প্রতি কোনো তোয়াক্কা করে না ক্ষমতাসীন দল। প্রসঙ্গত, মেহবুবা মুফতি হলেন কাশ্মীরের পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান। তিনি ভারতীয় সংবিধান থেকে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিল করার বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে কথা বলে আসছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ