Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

ভারতের সাথে চুক্তি অবিলম্বে বাতিল করতে হবে

সংবাদ সম্মেলনে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ভারতের সাথে সম্পাদিত সাতটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক বাতিলের দাবি জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ-এর মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী। তিনি বলেন, এসব চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক দেশবিরোধী। এগুলোর মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে ভারতের সকল চাওয়া-পাওয়া পুরণ করা হয়েছে। এসব চুক্তি বাস্তবায়িত হলে দেশ বহুমুখী ক্ষতির সম্মুখীন হবে। সংবিধান পরিপন্থী ও দেশবিরোধী এসব চুক্তি দেশের জনগণ কখনোই মেনে নিবে না।

গতকাল বৃস্পতিবার দুপুরে পল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি মাওলানা জহিরুল হক ভূঁইয়া, মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব, মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজীজ, মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী, হাফেজ মাওলানা নাজমুল হাসান, মুফতি জাকির হোসাইন কাসেমী, মাওলানা জয়নুল আবেদীন ও মাওলানা মুনির আহমদ।ঝড

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকা-ে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বলেন, বুয়েটের মতো দেশসেরা প্রতিষ্ঠানে সংঘটিত এই নিষ্ঠুর হত্যা- দেশের সর্বস্তরের মানুষের মনে গভীর আঘাত করেছে।

সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জমিয়ত মহাসচিব বলেন, ভারতের সাথে সম্পাদিত এসব অসম চুক্তির সমালোচনা করে বলেন, বার বার বলা হচ্ছে, ভারতকে মানবিক কারণে ফেনি নদীর পানি ব্যবহারের সুযোগ দেয়া হয়েছে। তাহলে আমরাও তো একই ধরনের মানবিকতা ভারতের কাছ থেকে আশা করি। কিন্তু ভারত সেটা কখনো করেছে ? গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে দৌঁড়ঝাপ ও দেন-দরবার করেও তিস্তার একফোঁটা পানি ভারতের কাছ থেকে আদায় করা যায়নি।

আল্লামা কাসেমী দেশের সকল খতীব, ইমাম ও সর্বস্তরের মুসলমানদের প্রতি আজ শুক্রবার বাদ জুমা হত্যাকা-ের শিকার বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের রূহের মাগফেরাত ও জান্নাতের জন্য বিশেষ দোয়া-মুনাজাত করার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

১৭ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন