Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

সাতজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

ময়মনসিংহে কলেজছাত্র খুন

ময়মনসিংহ ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:২৬ এএম

 ময়মনসিংহে প্রতিমা বিসর্জনের প্রস্তুতির প্রাক্কালে শাওন ভট্টাচার্য (২০) নামে এক কলেজছাত্র খুনের ঘটনায় সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে প্রধান আসামির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দির মধ্যদিয়ে খুনের রহস্য উদঘাটিত হয়েছে বলে দাবি করেন ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শাহ মো. আবিদ হোসেন।

গতকাল দুপুরে পুলিশ সুপারের সভা কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই দাবি করেন। পুলিশ সুপার জানান, নগরীর গোলপুকুরপাড় এলাকায় প্রতিমা বিসর্জনের প্রস্তুতির প্রাক্কালে তিনটি গ্রুপের নাচনাচির সময় মাহিন গ্রুপের সাথে আবির গ্রুপের ধাক্কাধাক্কি হয়। এসময় মাহিন তার পড়নের প্যান্টের ডান পকেট থেকে সুইজ গিয়ার চাকু বের করে এলোপাতাড়ি ধস্তাধস্তির সময় প্রথমে আবির আহত হয়। পরে শাওনের বুকে আঘাত করে। রক্তাক্ত জখম অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে শাওন মারা যায়। ঘটনার খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং কোতোয়ালী থানা ও ডিবি পুলিশকে আসামিদের গ্রেফতার করতে নির্দেশ দেন। পুলিশ ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এজাহারভূক্ত ৯ আসামির মধ্যে সাতজনকে গ্রেফতার এবং আলামু উদ্ধার করতে সক্ষম হয় বলেও জানান তিনি।

গ্রেফতারকৃতরা হলো নগরীর আর কে মিশন রোড গজিয়াবাড়ি মাঠের সেম্মত আলীর ছেলে মাহফুজুল ইসলাম মাহিন (১৮), নওমহলের আশিষ চন্দ্র দে’র ছেলে আকাশ চন্দ্র দে (১৫), আর কে মিশন রোডের ফরিদ উদ্দিনের ছেলে সারোয়ার উদ্দিন হৃদয় (১৮), বাঘমারার আসলামের ছেলে ফারদিন (১৯), হারুন অর রশিদের ছেলে সাজ্জাদ (১৯), চরপাড়ার হোসেনের ছেলে মুন্না (১৯) ও ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মরিচারচরের সিদ্দিকুলের ছেলে রাকিব (১৯)। এ ঘটনায় মাহফুজুল ইসলাম মাহিন আদালতে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

একই ঘটনায় ইসলাম উদ্দিন নামে এক ব্যবসায়ী তার কাছে মাহিন তিনদিন আগে সুইজ গিয়ার চাকুটি ক্রয় করেছেন বলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। তবে ওই ব্যবসায়িকে মামলায় আসামি করা হয়নি বলেও জানান পুলিশ সুপার। এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির ও আল আমিন, কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম ও ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ