Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চুক্তি বাতিল ও আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে রাজধানীতে মুক্তিযোদ্ধা দলের বিক্ষোভ মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:০০ পিএম
ভারতের সাথে অবৈধ চুক্তি ও বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে এবং ‘গণতন্ত্রের মা’ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল ও জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম  বিক্ষোভ মিছিল করেছে। 
শুক্রবার (১১ অক্টোবর)  সকাল সাড়ে ১১টায় জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল ও জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধে প্রজন্মের উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিকট এসে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। মিছিলে অংশ গ্রহণ করেন বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক কর্নেল (অবঃ) জয়নুল আবেদিন, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক সাদেক আহমেদ খান, সহ-সভাপতি আবুল হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার নজরুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল হালিম, মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের আহবায়ক কালাম ফয়েজী, সদস্য সচিব রায়হান আল মাহমুদ রানা, যুগ্ম আহবায়ক মাজহারুল ইসলাম, মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, তরিকুল ইসলাম  প্রমুখ।
পথসভায় মিছিলে নেতৃত্বদানকারী প্রধান অতিথি বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী ছাড়াও বক্তব্য রাখেন যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক সাদেক আহমেদ খান ও মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের আহবায়ক কালাম ফয়েজী।

মিছিল শেষে মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানের সভাপতিত্বে পথসভায় বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, বর্তমান আওয়ামী সরকার এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাবন্দী করে রাখার উদ্দেশ্যই হলো-দেশবিরোধী সকল চুক্তি বাস্তবায়নে যাতে তারা বাধাপ্রাপ্ত না হয়। দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব বিকিয়ে দিয়ে দেশকে পরাধীনতার শৃঙ্খলে আবদ্ধ করতে উঠে পড়ে লেগেছে বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী। দেশের সমুদ্র সীমায় অন্য দেশকে ২০টি রাডার স্থাপনের অনুমতি দেয়ার অর্থই হচ্ছে দেশের স্বাধীনতা ও স্বার্বভৌমত্বকে প্রশ্নাতীত করে তোলা। মানুষের বাক-ব্যক্তি স্বাধীনতা হরণ করে একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠায় সরকার এখন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।
রিজভী আহমেদ বলেন, সরকারের আনুকুল্যে সন্ত্রাসীরা দেশব্যাপী দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের দ্বারা বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যা আবারও প্রমান করেছে-দেশে বিন্দুমাত্র আইনের শাসন নেই। দেশবিরোধী চুক্তির প্রতিবাদকারী আবরার ফাহাদই হচ্ছে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার প্রথম শহীদ। আমি অবিলম্বে দেশবিরোধী সকল চুক্তি বাতিল এবং আবরার ফাহাদকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।  
তিনি বলেন, অবৈধ উপায়ে ক্ষমতা দখল করে ‘গণতন্ত্রের মা’ এদেশের গণমানুষের আস্থাভাজন নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা ও সাজানো মামলায় জড়িয়ে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে কারাবন্দী করে রেখেছে সরকার। বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী রেখে তিলে তিলে নি:শেষ করে চিরকাল ক্ষমতায় থাকার যে দিবাস্বপ্ন দেখছে বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী তা এদেশের মানুষ কোনদিনই পূরণ হতে দেবে না। দেশের মানুষ এখন গর্জে উঠেছে।  
বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এর নেতৃত্বে মিছিল শুরু হলে মিছিলে অংশগ্রহণকারী নেতাকর্মীরা ভারতের সাথে অবৈধ চুক্তি ও বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে এবং বিএনপি চেয়ারপার্সন ও ‘গণতন্ত্রের মা’ এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে সোচ্চার কন্ঠে শ্লোগান দিয়ে রাজপথ প্রকম্পিত করেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আবরার হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ