Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতা প্রস্তাব, সউদী ও ইরান সফরে যেতে পারেন পাক প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:০৪ পিএম

সউদী আরব ও তেহরানের মধ্যে মধ্যস্থতা করতে ওয়াশিংটনের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দেশ দুটি সফরে যেতে পারেন বলে ইসলামাবাদের পররাষ্ট্র দফতর আভাস দিয়েছে।

এ বিষয়ে পাক পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ডক্টর মোহাম্মদ ফয়সাল বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সউদী আরব ও ইরান সফরের সম্ভাবনা রয়েছে এবং এ ব্যাপারে নতুন কোন তথ্য থাকলে আমি আপনাদের জানাবো।

গত মাসে ওয়াশিংটন সফরের সময় খানকে এই প্রস্তাব দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি ইরানের সঙ্গে সউদী আরবের উত্তেজনা প্রশমনে সহায়তা করতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন। সউদী আরবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় তেল শোধনাগারে এক হামলার জন্য তেহরানকে দায়ী করে ওয়াশিংটন। ১৪ সেপ্টেম্বর ওই হামলার পর থেকে সউদী আরব ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে চলেছে। মধ্যস্থতার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে এই সফর হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাব দিতে রাজি হননি মুখপাত্র।

২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনে সউদী নেতৃত্বাধিন সামরিক কোয়ালিশন বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইরত ইরানপন্থী হুতি গ্রুপ ওই হামলার দায় স্বীকার করে। কিন্তু ওয়াশিংটন ও রিয়াদ বলছে যে হামলা হয়েছে ঠিক উল্টো দিক থেকে। তাই তারা ইরানকেই দায়ি করছে।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের সাইডলাইনে ট্রাম্পের সঙ্গে এক বৈঠকের পর ইমরান খান বলেন যে, তিনি উত্তেজনা কমানোর চেষ্টা করছেন এবং মধ্যস্থতা করছেন। তিনি এমনকি ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গেও কথা বলেছেন। আন্তর্জাতিক মঞ্চে ইমরান খান তার সরকারের তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে এবং উত্তেজনা কমাতে আলোচনায় মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব দিচ্ছে। তিনি আলাদাভাবে ট্রাম্পকে প্রস্তাব দিয়ে বলেন যে প্রতিবেশী আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য পাকিস্তান মধ্যস্থতা করতে পারে।

গত সপ্তাহে তালেবান প্রতিনিধিরা ইসলাবাদে গিয়ে পাকিস্তানের সরকারি কর্মকর্তা ও যুক্তরাষ্ট্রের আফগান বিষয়ক বিশেষ দূত জালমি খালিলজাদের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। তালিবান ও ওয়াশিংটনের মধ্যে পুনরায় আলোচনা শুরুর আহ্বান জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আফগান শান্তি আলোচনা বাতিলের পর ইসলামাবাদেই প্রথম খালিলজাদের সঙ্গে তালেবান নেতাদের কথা হয়। তবে এটা ছিলো অনানুষ্ঠানিক এবং এতে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু করার কোন বিষয় ছিলো না। সূত্র: নিউজ রিপাবলিক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ