Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

ইসিবির সঙ্গে নেই ফ্লাওয়ার

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

দীর্ঘ একযুগের সম্পর্কের ইতি টানছেন অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার। ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) হয়ে ১২ বছরে বিভিন্ন দায়িত্ব সামলেছেন জিম্বাবুয়ের সাবেক এই ক্রিকেটার। যার মধ্যে ছিল ইংল্যান্ড দলের প্রধান কোচের গুরুদায়িত্বও।

ফ্লাওয়ারের কোচিংয়ে ইংল্যান্ড পেয়েছে অনেক বড় সাফল্য। তার অধীনে ইংলিশরা প্রথমবার জিতেছিল আইসিসির কোনও টুর্নামেন্ট। ২০১০ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতার পরের বছরে ১৯৮৬-৮৭ মৌসুমের অ্যাশেজের পর প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ার মাটি থেকে মর্যাদার সিরিজ জেতার কীর্তি গড়েছিল ইংল্যান্ড। ইসিবির সঙ্গে ফ্লাওয়ার প্রথম যুক্ত হন ২০০৭ সালে প্রধান কোচ পিটার মুরের সহকারী হিসেবে। দুই বছর পর এই জিম্বাবুইয়েন পান প্রধান কোচের দায়িত্ব। ২০১৩-১৪ মৌসুমের অ্যাশেজে ভরাডুবির পর কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়ে নেন ‘টেকনিক্যাল ডিরেক্টর অব এলিট ক্রিকেট’-এর দায়িত্ব।

গতকাল এক বিবৃতিতে ইসিবি নিশ্চিত করেছে ফ্লাওয়ারের চলে যাওয়ার খবর। অবশ্য সাবেক জিম্বাবুয়েইন ব্যাটসম্যান ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ইংল্যান্ডভিত্তিকই করতে চান। একই সঙ্গে তিনি ইংল্যান্ডের নতুন কোচ ক্রিস সিলভারউডকেও দিয়েছেন সমর্থন, ‘ক্রিস (সিলভারউড) ইংল্যান্ডকে এগিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাওয়ায় সত্যিই আমি খুশি। আমার মনে হয়, সে দারুণ কাজ করবে। একই সঙ্গে আমি শুভকামনা জানাতে চাই নতুন পারফরম্যান্স ডিরেক্টর মো বোবাটকে।’

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল রাজস্থান রয়্যালসের কোচের দায়িত্ব নেওয়ার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে ফ্লাওয়ারের। অবশ্য ভবিষ্যৎ নিয়ে কিছু স্পষ্ট করেননি তিনি। তবে ইংল্যান্ডে কাজ করার ইচ্ছা তার, ‘অনেকদিন ধরে বড় কোনও ছুটি পাইনি আমি। আমি ইংল্যান্ডেই থাকব।’
আগের মতো করে ইংলিশ ক্রিকেটকে খুব কাছ থেকে দেখব, দারুণ ভবিষ্যৎ অপেক্ষা করছে তাদের।’
ফ্লাওয়ারের আগেই বেশ কয়েকটি বদল হয়েছে ইসিবিতে। পারিবারিক কারণে টিম ডিরেক্টরের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন অ্যান্ড্রু স্ট্রাউস। তার জায়গায় ফিরেছেন অ্যাশলে জাইস। প্রধান কোচের চেয়ার থেকে ট্রেভর বেলিস সরে দাঁড়ানোর পর বসানো হয়েছে সিলভারউডকে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ