Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

টঙ্গীতে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার : স্বামী আটক

টঙ্গী সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

টঙ্গীতে স্বামীর হাতে শাজেদা বেগম (২৯) নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। গত শনিবার দিনগত রাত ২টায় মেঘনা রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্বামী মো.রুবেল মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে। মাদকের টাকা না দেয়ায় এ হত্যা কান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ জানায়।

টঙ্গী পূর্ব থানা এসআই মানিক মাহমুদ বলেন, গত কয়েক বছর আগে রুবেল মিয়ার সাথে শাজেদা বেগমের বিয়ে হয়। তাঁরা টঙ্গীর মেঘনা রোড বস্তি এলাকায় বসবাস করে আসছিল। যৌতুকের টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে স্বামী রুবেল স্ত্রী শাজেদাকে বাঁলিশ চাপা দিয়ে শ্বাস রোধে হত্যা করে। পরে ঘটনাটি আতœহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা চালায় স্বামী রুবেল। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশটি উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। নিহত শাজেদা তিন সন্তানের জননী।

নিহতের পিতা ফরিদ মিয়া জানান, রুবেল প্রায় সময় আমার মেয়ের কাছে যৌতুকের টাকা ও নেশার টাকা দাবি করতো। টাকা দিতে না পারায় আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। আমার মেয়ে একটি ভাঙ্গাড়ির দোকানে কাজ করে। প্রায় সময় নেশার টাকা দিতো। এখন দেড় মাসের একটি বাচ্চা নিয়ে কাজ করতে খুব কষ্ট হয়।

এ ব্যাপারে টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. কামাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ