Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

বাংলা থেকে অনেক রসদ পেয়েছি

নোবেলজয়ী অভিজিত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

সারা বিশ্বের আপামর বাঙালিকে গর্বিত করে অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিত বন্দ্যোপাধ্যায়। আর নিজের জীবনের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য দিনটিতে বিশ্ববিখ্যাত এই অর্থনীতিবিদের মনে পড়ছে নিজের ছেলেবেলার কথা, বাঙলার কথা। ভারতের একটি সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে আমি একাধিকবার নানাভাবে গবেষণা করেছি। আমাদের কাজে অন্যভাবেও চিন্তা করতে তো হয়, সেখানে আমার ছোটবেলা-বড় হয়ে ওঠা নানাভাবে সাহায্য করেছে।’
নিজের কাজ সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেছেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ২০ বছর গবেষণা করেছি। ভারত, চিন, সাউথ আফ্রিকা, কেনিয়া, নাইজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, চিলি, ঘানা এই সমস্ত দেশে আমি বারেবারে গিয়েছি।’ তবে যে কাজে দীর্ঘ ২০ বছর ধরে নিযুক্ত থাকায় এই সাফল্য, সেই বিশ্বব্যাপি দারিদ্র্য দূরীকরণের বিষয়ে বলতে গিয়ে কঠিন বাস্তবের কথাই তুলে ধরেছেন তিনি। তার কথায়, ‘একজায়গায় বসে বোতাম টিপে বিশ্ব দারিদ্র্য দূর করা যায় না। ফ্রি মার্কেট করে দিলেই সব ভালো হয়ে যাবে বলে যে ধারণা চারিদিকে ছড়িয়ে দেয়া হয়, তা আসলে সঠিক নয়। একটা একটা ক্ষেত্র ধরতে হবে, সমাধান করতে হবে।’ আর এবিষয়ে তিনি যে আশাবাদী, তা জানাতেও ভোলেননি তিনি।
তবে, নোবেল পেয়েও দারুন উচ্ছ্বাসে ভেসে যেতে নারাজ অভিজিত। গতকাল সোমবার নোবেল পাওয়ার খবর পাওয়ার পরই তিনি ঘুমিয়ে পড়েন বলে জানিয়েছেন। তার কথায়, ‘ফোন আসছে, শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন সকলে। আমি তো আকাশ থেকে পড়লাম। তবে ছোটবেলাই আমাকে বারবার সাহায্য করেছে। ছোটবেলা অনেক রসদ দিয়েছে।’ সূত্র : টিওআই।



 

Show all comments
  • llp ১৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:১৪ এএম says : 0
    Stop worshipping nobel prize. This prize is not based on merit. It is based on zion world order.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ