Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

‘দুর্নীতি প্রমাণ করতে পারলে পদত্যাগ করব’

ইবি সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:২০ এএম


 যদি কখনো কেউ আমার বিরুদ্ধে ৫ পয়সার দুর্নীতি প্রমাণ করতে পারে তাহলে সাদা কাগজে পদত্যাগ করে চলে যাবো বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী। গতকাল দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত গ্রুপের কর্মীরা দুর্নীতি বিরোধী মিছিল শেষে তারা সাথে দেখা করলে তিনি এ কথা বলেন।

জানা যায়, ইবি শাখা ছাত্রলাগের পদবঞ্ছিত নেতা-কর্মীরা দুর্নীতিবাজদের শাস্তি দাবি জানান ভিসি আসকারীর কাছে। এসময় আসকারী বলেন, আমি দুর্নীতি করি না। আমাকে দুর্নীতিবাজ প্রমাণ করার চেয়ে খড়ের গাদায় সূঁচ খুঁজে পাওয়া সহজ। এসময় তিনি চ্যালেঞ্জ করে বলেন, দায়িত্ব গ্রহনের পর আমার আশেপাশের কারো দুর্নীতি প্রমাণ হয়েছে অথচ শাস্তি দেয়া হয়নি এটা অসম্ভব। গত তিন বছরে ৩৭ জনকে শাস্তি দিয়েছি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে কোনো ভিসি দুর্নীতিবাজদের এতো শাস্তি দেননি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

জানা যায়, গতকাল একটি জাতীয় দৈনিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় মেগা প্রকল্পের চাপে অব্যাহতির আবেদন প্রকৌশলীর শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় মেগা প্রকল্পে কাজ পাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রধান প্রকৌশলীকে ক্যাম্পাসের আশেপাশের রাজনৈতিক নেতা এবং চরমপন্থী নেতারা হুমকি দেয় এবং এর সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন দুর্নীতিবাজ শিক্ষক জড়িত। এসকল দুর্নীতিবাজ শিক্ষকদের শাস্তির দাবিতে তাদের এ মিছিল বলে একাধিক ছাত্রনেতা নিশ্চিত করেছেন। তবে কোন কোন শিক্ষক দুর্নীতির সাথে জড়িত এবিষয়ে তারা কিছু বলেননি। এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী আলিমুজ্জামান টুটুল বলেন, ছাত্রলীগের সাথে আমার কোনো কথা হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষকও আমাকে হুমকি দেননি তবে কোনো কাজ করতে গেলে প্রতিবন্ধকতা আসতে পারে। আমি আমার ব্যক্তিগত কারণে প্রধান প্রকৌশলীর পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলাম।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন