Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সরকারি জমিতে আ.লীগ নেতার অবৈধ স্থাপনা

প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কালাই (জয়পুরহাট) উপজেলা সংবাদদাতা
জয়পুরহাটের কালাইয়ে প্রভাবশালী এক আওয়ামী লীগ নেতা প্রকাশ্য দিবালোকে সরকারি অন্তত ১০ শতক জমি দখল করে ইমারত নির্মাণ শুরু করার ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসন, সড়ক ও জনপদ বিভাগ এবং জেলা পরিষদের নীরব ভূমিকা পালনে বিভিন্ন মহলে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে ও চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। পৌর শহরের কালাই সাব-রেজিস্টার অফিসের প্রাচীরের পূর্বপার্শ্বে সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের সিএন্ডবি রাস্তা সংলগ্ন ৭ শতাংশ জমি এবং জেলা পরিষদের অন্তর্গত ডাক বাংলার সামনের অন্তত ৩ শতাংশ সরকারি জমি প্রকাশ্য দিবালোকে অবৈধভাবে দখল করে পাকা উমারত তৈরির কাজ শুরু করেছে। আর অবৈধভাবে দখলদারী এ কাজে ইতোমধ্যেই কলাম নির্মাণসহ ট্রাকে ট্রাকে বালু দিয়ে জায়গা ভরাট করে সেখানে স্থায়ী ইমারত তৈরির কাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। সরকারি জমি প্রকাশ্য দিবালোকে এমন দখলদারী সত্বেও এ ব্যাপারে ওই দুটি দু’সংস্থাসহ স্থানীয় প্রশাসনের নীরব ভূমিকা পালনে বিভিন্ন মহলে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে ও চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ইমারত নির্মাণ শ্রমিক আনিছুর রহমান বলেন, আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন গোফ্ফারের নির্দেশে সরকারি এ জায়গায় আমরা ইমারত নির্মাণের কাজ করছি। এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন গোফ্ফার বলেন, জেলা পরিষদের জায়গায় জেলা পরিষদ কাজটি করছে। এখানে আমার কিছু নাই। আমি শুধু তত্ত্বাবধায়ন করছি। এ ব্যাপারে কালাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বাদল চন্দ্র হালদার বলেন, কয়েকদিন আগে ওই জায়গাটি মাটি ও বালু দিয়ে ভরাট করতে দেখেছি। তবে জায়গাটি কার তা মাপজোক না করে বলা যাবে না। এ বিষয়ে সড়ক ও জনপদের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী সুশীল কুমার সাহা বলেন, সওজের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে স্থাপনা নির্মাণের বিষয়টি আপনাদের মাধ্যমে জানলাম, খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। জয়পুরহাট জেলা পরিষদের প্রশাসক এসএম সোলায়মান আলী বলেন, সরকারি জায়গায় সরকারি নীতিমালার বাইরে এবং যথাযথ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার আগে ওই স্থানে কোন কিছু করার সুযোগ নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সরকারি জমিতে আ.লীগ নেতার অবৈধ স্থাপনা