Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

প্রবাসী স্বামীর সম্পদ আত্মসাৎ স্ত্রী কারাগারে

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০১ এএম


 কলাপাড়ায় জাকির হোসেন নামে এক প্রবাসীর নগদ অর্ধকোটি টাকা, ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও ১ লাখ টাকার গৃহ সামগ্রী আত্মসাৎপূর্বক প্রতারণা ও খুনের হুমকির অভিযোগে স্ত্রী উম্মে হান্না লিয়ার বিরুদ্ধে করা মামলায় জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শিহাব উদ্দীনের আদালত এ আদেশ প্রদান করেন। একই আদেশে আদালত লিয়ার পিতা মো. জসিম উদ্দীন মাস্টারের জামিন মঞ্জুর করেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বড়বালিয়াতলি ইউনিয়নের মৃত নুরুল ইসলামের সৌদি প্রবাসী ছেলে জাকির হোসেনের সাথে কলাপাড়া পৌর শহরের বাদুরতলী শান্তিবাগ এলাকার মো. জসিম উদ্দীন মাস্টারের একমাত্র কন্যা উম্মে হান্না লিয়ার ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে পারিবারিক প্রস্তাবে বিয়ে হয়। এরপর স্ত্রীর পড়াশুনার জন্য জাকির জেলা শহরে বাসা ভাড়া নিয়ে লিয়ার শিক্ষা জীবন সমাপ্ত (এমএ) করান। জাকির হোসেন দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনে স্ত্রীর প্রতি অগাধ ভালোবাসা ও সরল বিশ্বাসে বিভিন্ন সময়ে কষ্টার্জিত অর্থে ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার এবং স্ত্রীর পড়াশোনা খরচ, গৃহ সামগ্রী ক্রয়, জমি ক্রয়সহ বিভিন্ন প্রয়োজনে স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব ও স্ত্রীর কাছে নগদ ৫৩ লাখ ৪১ হাজার ৮ শত ৯০ টাকা গচ্ছিত রাখেন।
বিদেশে থাকার কারণে তার স্ত্রীর সাথে সম্পর্কের অবনতি হতে শুরু করে। একপর্যায়ে তা চরম আকার ধারণ করে। আপোষ ফয়সালার চেষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ার পর স্ত্রী ও শ্বশুড়ের নামে প্রতারণা, আত্মসাৎ ও খুন জখমের হুমকির অভিযোগে আদালতে ৩০ জুলাই ২০১৯ মামলা দায়ের করেন জাকির হোসেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে স্ত্রী ও শ্বশুড়ের নামে সমন ইস্যুর আদেশ প্রদান করেন। এরপর গতকাল স্ত্রী উম্মে হান্না লিয়া ও শ্বশুড় জসিম উদ্দীন মাস্টার আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হয়ে জামিন আবেদন করার পর আদালত শুনানি শেষে স্ত্রী লিয়ার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ প্রদান করেন।
এর আগে গত বছরের ৯ ডিসেম্বর স্ত্রী উম্মে হান্না লিয়া পটুয়াখালীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আমলী আদালতে বিদেশে অবস্থানরত স্বামী জাকির হোসেনের নামে ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবির অভিযোগে মামলা করেন। এরপর জাকির দেশে এসে স্ত্রীর দায়েরকৃত যৌতুক মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন লাভ করেন। পরবর্তীতে বাদী লিয়া তার স্বামীকে তালাক প্রদানের তথ্য গোপন করে স্বামীর সাথে আপোষ হয়ে সংসার করছেন মর্মে আদালত থেকে মামলা প্রত্যাহার করে নেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন