Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ফিলিস্তিনি কিশোরীর ছবি দিয়ে তুরস্কের বিরুদ্ধে গুজব ছড়াচ্ছে কুর্দিরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:২৬ পিএম

ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলনের আইকন আল-তামিমির একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে তুরস্কের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে কুর্দিরা। এমন অভিযোগ করছে তুরস্ক। খবর তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাকের। গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিতে ভুয়া শিরোনাম ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উত্তর সিরিয়ায় চলমান তুরস্কের অভিযানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে কুর্দি সমর্থকরা।

ভুয়া ছবিতে দেখা যায়, তুরস্কের পতাকাসহ ও ইউনিফর্ম পড়া এক সৈনিকের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত রয়েছে। ওই ছবির শিরোনামে বলা হয়েছে, ছবিটি তোলা হয় গত সপ্তাহে শুরু হওয়া অপারেশন পিস স্প্রিংয়ে। ছবিটি প্রকৃতপক্ষে ২০১২ সালের ইসরাইলি সেনার মুখোমুখি হন ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন কিশোরী তামিমি।

তার এক আত্মীয়কে রাবার বুলেটে ইসরাইলি সেনা আহত করলে ওই সেনাকে আঘাতের অপরাধে ২০১৭ সালে তামিমি গ্রেফতার হন।

অভিযান শুরুর প্রথম থেকেই কুর্দিরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া ভিডিও, ছবি এবং তথ্য ব্যবহার করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। সীমান্ত নিরাপদ, সিরিয়ার অখণ্ডতা ও সিরিয়ান শরণার্থীদের ফিরিয়ে দিতে চলতি মাসের ৯ অক্টোবর থেকে উত্তর সিরিয়ায় অপারেশন পিস স্প্রিং শুরু করেছে তুর্কি সরকার। উত্তর সিরিয়ার পূর্ব ফোরাত নদী পিকেকে/পিওয়াইডি ও ওয়াইপিজে মুক্ত করতে চায় আঙ্কারা।

অনেক বছর ধরে পিকেকে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে তুরস্ক। পিকেকে সংগঠনটিকে সন্ত্রাসী হিসেবে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন তালিকাভুক্ত করেছে। ওই সংগঠনটির হাতে এ পর্যন্ত ৪০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। এর মধ্যে নারী, কিশোর ও শিশুরাও রয়েছে।



 

Show all comments
  • jack ali ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:৪১ পিএম says : 0
    We will be killed we will be raped, we will be homeless until unless we come back to Qur'an and Sunnah. This girl didn't cover herself according Qur'an and Sunnah.
    Total Reply(0) Reply
  • kuli ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৪৭ পিএম says : 0
    কুরদিদের বিশ্বাস করা যায়না।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ