Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

তুরস্কের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ পরমাণু বোমা!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:৪৯ পিএম

সম্প্রতি ইরাক ও আফগানিস্তান থেকে শতাধিক ঘাঁটি প্রত্যাহার করে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এরপরও বিশ্বের প্রায় ৭০টি দেশে যুক্তরাষ্ট্রের ৮ শতাধিক সামরিক ঘাঁটি রয়েছে। এসব ঘাঁটির মধ্যে তুরস্কের ইনসিরলিক বিমান ঘাঁটিতে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের সেনা ঘাঁটিটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই ঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি পরমাণু বোমা রয়েছে। আর এই ৫০টি মার্কিন পরমাণু বোমা নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সম্প্রতি সিরিয়ার মানবিজে তুরস্কের কুর্দি বিরোধী অভিযানের ফলে তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধ প্রকাশ্যে এসেছে। কুর্দিদের দীর্ঘ দিনের বন্ধু মার্কিন প্রশাসন। সে কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্প তু্রস্ককে সেখানে অভিযান বন্ধ করতে বললেও তা পাত্তাই দিচ্ছেন না এরদোয়ান। খবর ওয়াশিংটন পোস্ট ও রয়টার্সের।

এরই মধ্যে তুরস্কের মাটিতে মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ পরমাণু বোমার কী হবে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। পরমাণু বোমাগুলোই এখন ওয়াশিংটন ও আঙ্কারার মধ্যে উত্তেজনাপূর্ণ সম্পর্কের মূল অনুঘটকের ভূমিকা পালন করছে। এমন পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্র এখন বোমাগুলো ফিরিয়ে নেয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে। কিন্তু পশ্চিমা বিশ্লেষকদের মতে, ইনসিরলিক বিমানঘাঁটিতে লুকিয়ে রাখা বোমাগুলো জিম্মি করে রেখেছে এরদোগানের সরকার। সম্পর্ক আরও খারাপের দিকে গেলে তুরস্ক এগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে বলেও মনে করছেন তারা।

উল্লেখ্য, সিরীয় সীমান্ত থেকে ১০০ মাইল দূরে ইনসিরলিক বিমানঘাঁটিতে পারমাণবিক ভরের বি৬১ বোমা রয়েছে। তুর্কি বাহিনীর সঙ্গে এটিতে মার্কিন সেনারাও রয়েছেন। মূলত এই বিমানঘাঁটি ওয়াশিংটনের হিসাব-নিকাশকে জটিল করে তুলেছে। মার্কিন কর্মকর্তারা এসব বোমা সরানোর পরিকল্পনা করছেন।



 

Show all comments
  • গনিম ১৭ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:১৫ পিএম says : 0
    ইরাকের মত পারমাণবিক বোমা আছে বলে আবার তুরস্কের বিপক্ষে আমেরিকা ইহুদি জংগী রা নাটক/হামলা চালায় বেনাত
    Total Reply(0) Reply
  • kuli ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ১:৫৩ পিএম says : 0
    অবস্থা খারাপ হলে বোমা গুলার নিওন্ত্রন তুরস্কের নেয়া উচিৎ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ