Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

সিদ্দিক আমাকে সব সময় মানসিক টর্চারে রেখেছে -মিম

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

: অভিনেতা সিদ্দিক ও মিমের সংসার ভাঙা নিয়ে দুজনের পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। মিম সিদ্দিককে শিঘ্রই ডিভোর্স দিতে যাচ্ছেন। এর কারণ হিসেবে মিম বলেছিলেন, মিডিয়ায় কাজ করতে চাইলেও সিদ্দিক তাকে মিডিয়ায় কাজ করতে দিতে চান না। সিদ্দিক বলেছেন, মিম আমার সংসারে মনোযোগী হবে এবং একমাত্র সন্তানকে সময় দেবে, এটা চাই। তবে মিম শুধু মিডিয়ায় কাজ করতে না দেয়াকেই একমাত্র কারণ হিসেবে বলছেন না। আরও অনেক কারণ রয়েছে বলে জানিয়েছেন, যা বলা যায় না। বললে সিদ্দিককে জেলে যেতে হবে। তিনি এ অভিযোগও করেছেন, সিদ্দিক এখন তাকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে। এজন্য তিনি থানায় জিডিও করেছেন। মিম তাদের সম্পর্কের শুরুর কথা জানিয়ে বলেন, সিদ্দিককে ভালোবেসে আমি ¯েপনের বিলাসী জীবন ছেড়ে চলে এসেছিলাম। পরিবারের সম্মতি নিয়ে ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলাম। সেই ভালোবাসার ঘর আজ ভাঙনের মুখে। তিনমাস ধরে আলাদা থাকছি আমরা। মিম বলেন, শুধু মিডিয়ায় কাজের বিষয় নয়, তার সঙ্গে ঘর ভাঙার শত শত কারণ আছে। যেগুলো এতদিন আমি সহ্য করেছি। যা এখন আর সহ্য করতে পারছি না। এমন অনেক বিষয় রয়েছে যা বললে গ্রেফতার হবেন সিদ্দিক। তিনি বলেন, বিয়ের পর থেকেই আমাদের মধ্যে অমিল শুরু হয়। বিয়ের আগে আমার কোনো কিছু নিয়ে সিদ্দিকের আপত্তি ছিল না। কিন্তু বিয়ের পর সে ধীরে ধীরে পরিবর্তন হতে থাকে। তার এই পরিবর্তনের বিষয়গুলো আমি আর মানতে পারছি না। সব মেয়েদের স্বপ্ন থাকে, তার স্বামী একজন ভালো মনের মানুষ হবে। তারা সুখ শান্তিতে থাকতে পছন্দ করে। সিদ্দিক আমার সব কাজ নিয়ে অভিযোগ করে। আমি সব কিছু ছেড়ে দিতাম, যদি আমার স্বামী আমাকে মানসিকভাবে শান্তি দিতো ও ভালোবাসতো। কিন্তু সে এমন মানুষ না। এই বিষয়গুলো সত্যি আমার কাছে বোঝা মনে হচ্ছে। আর যে কারণে সময়ের সাথে সাথে তার সঙ্গে থাকাটাও কতটা যৌক্তিক হবে সেটা সময় বলবে। সিদ্দিক আমার সঙ্গে অনেক প্রতারণা করেছে। ছেলের মুখের দিকে তাকিয়ে সংসার করতে চেয়েছিলাম। সব কিছু তো আর বলা সম্ভব নয়, যদি বলতাম তাহলে এতদিনে ওকে জেলে থাকতে হতো। মিম বলেন, সিদ্দিক আমাকে সব সময় মানসিক টর্চারে রেখেছে। আমার অধিকার হরণ করেছে। না, ওর সংসারে আমার কোনো স্বাধীনতা নেই। এখন সে আমাকে হুমকি দিয়ে আসছে নানাভাবে। তাই আমি তার নামে জিডি করেছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিম

২৫ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ