Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

গাজীপুরে কিশোরীর লাশ উদ্ধার

গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ অক্টোবর, ২০১৯, ২:৩৬ পিএম

গাজীপুর সদর উপজেলার বিকে বাড়ি এলাকায় একটি জঙ্গল থেকে লুনা আক্তার (১৫) এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
আজ শুক্রবার সকালে লাশটি উদ্ধার করা হয়। লুনা লালমনিরহাটের পাটগ্রাম থানার কুলসিবাড়ি এলাকার নবী উদ্দীনের মেয়ে। সে ছোটবেলা থেকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বাহাদুরপুর এলাকায় তার মামীর সঙ্গে থাকতো এবং স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতো।
এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত লুনার মামী আকলিমা বেগম ও তার ছেলে রবিউল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে মামীর বাড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে লুনা। পরে তার মামী ও মামাতো ভাই লাশ এলাকায় একটি জঙ্গলে ফেলে দেয়। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা ঘটনাটি পুলিশে জানায়।
পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত লুনার মামী আকলিমা ও মামাতো ভাই রবিউলকে আটক করে। এসময় তাদের দেওয়া তথ্য মতে, ওই জঙ্গল থেকে লুনার লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে ঘটনাটি সন্দেহজনক। এটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
গাজীপুর মহানগর সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শহিদুল ইসলাম জানান, নিহত লুনা ছোটবেলা থেকে তার মামীর কাছে থাকতো। জিজ্ঞাসাবাদে তার মামী পুলিশকে জানায়, রাতে লুনাকে গালিগালাজ করা হয়। পরে সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। এসময় ভয় পেয়ে তার মামী ও মামাতো ভাই মিলে লাশ ওই জঙ্গলে ফেলে দেয়। বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় নিহত লুনার মামী ও মামাতো ভাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। নিহত লুনার গলায় দাগ রয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে এটি হত্যা, নাকি আত্মহত্যা।  



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ