Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

চোখ থাকবে যাদের উপর

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:৪২ পিএম | আপডেট : ৯:০০ পিএম, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে শনিবার শুরু হয়েছে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের খেলা। চলবে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত। টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরে বাংলাদেশের দু’টি এবং ছ’টি বিদেশী ক্লাবসহ আটটি দল অংশ নিচ্ছে। এরা হলো- বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস, আয়োজন চট্টগ্রাম আবাহনী, ভারতের মোহনবাগান, চেন্নাই সিটি এফসি, কেরালা এফসি, মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ক্লাব, মালয়েশিয়ার টেরেঙ্গানু এফসি এবং লাওসের ইয়াং এলিফ্যান্টস ফুটবল ক্লাব। উদ্বোধনী দিন সন্ধ্যায় স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনীর মুখোমুখি হয় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন টিসি স্পোর্টস ক্লাব। ম্যাচে স্বাগতিক দল ৪-১ গোলের বড় জয় পেয়ে শুভ সূচনা করে।

২০১৫ সালে টুর্নামেন্টের প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনী। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই তারা জানায় শিরোপা পুনরুদ্ধারেই মাঠে নামবে দলটি। ২০১৭ সালে সর্বশেষ আসরের শিরোপা জয়ী মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ক্লাবের লক্ষ্য শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখা। অন্যদিকে ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদাপূর্ণ আসর বিপিএলের চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস চাইবে নতুন মৌসুমে লিগ শুরুর আগে আরেকটি শিরোপার স্বাদ পেতে। ভারতের ঐতিহ্যবাহী মোহনবাগন, চেন্নাই সিটি এএফসি, বা কেরালা এফসিও খালি হাতে দেশে ফিরতে চাইবে না। মালয়েশিয়ার টেরেঙ্গানু এফসি এবং লাওসের ইয়াং এলিফ্যান্টস ফুটবল ক্লাবের লক্ষ্য থাকবে সাফল্য তুলে নেয়া। তবে দলগুলোর পারফরমেন্স ছাপিয়ে এবার ফুটবলপ্রেমীদের চোখ থাকবে যাদের উপর তারা সংখ্যায় নেহাত কম নন। এই তালিকায় আছেন- আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনীর মিডফিল্ডার জামাল ভূঁইয়া, যিনি আবার জাতীয় দলের অধিনায়ক এবং ঘানার ফরোয়ার্ড প্রিন্স টাগো, বসুন্ধরা কিংসের কোস্টারিকার হয়ে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলা ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেস সোলেরা, স্থানীয় ফরোয়ার্ড মতিন মিয়া ও ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান। মোহবাগানের ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর ডিফেন্ডার ড্যানিয়েল সাইরাস, স্থানীয় মিডফিল্ডার হাভিয়ের সানচেস মুনোস। টেরেঙ্গানু এফসি’র ইংলিশ ফরোয়ার্ড লি টাক, যিনি ২০১৭-১৮ মৌসুমে বিপিএলে ঢাকা আবাহনীকে লিগ চ্যাম্পিয়ন করার পাথে ১০ গোল করেছিলেন। এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড শেখ কামাল ক্লাব কাপে মালয়েশিয়ার দল টেরেঙ্গানু এফসির হয়ে চট্টগ্রামে এসেছেন। এখন পর্যন্ত মালয়েশিয়ান সুপার লিগে শিরোপা স্বাদ না পাওয়া টেরেঙ্গানু তাকিয়ে থাকবে বাংলাদেশের ফুটবলকে ভালোভাবে চেনা এই লি টাকের দিকেই। এছাড়া চেন্নাই সিটি এফসি’র আক্রমণভাগ স্প্যানিশ ফুটবলারে ঠাসা। তাদের একাধিক ফুটবলারের উপরই চোখ থাকবে সবার। ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (আইএসএল) জয়ে এই দলের আক্রমণভাগে তিন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড ছিলেন দুর্দান্ত। এদের মধ্যে পেদ্রো মানসি করেছিলেন ২১টি, সান্দ্রো রদ্রিগেস ৯টি এবং নেস্তোর গর্দিলো গোল করেছিলেন ৮টি। চেন্নাইয়ের এই ধারালো আক্রমণভাগ এবার নজর কাড়বে চট্টগ্রামবাসীর তা বলাই বহুল্য।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ