Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭, ১৪ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

প্রাক্তন বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ মেয়ের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:৪৮ পিএম

ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে দিতে চেয়েছিল পরিবার। তাতে রাজি না হওয়ায় হেনস্থা করা হচ্ছিল। বাবা ও পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে এ বার এমন অভিযোগ তুললেন ভারতের মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্রনাথ সিংহের মেয়ে ভারতী সিংহ। তার দাবি, ভুয়া কাগজ তৈরি করে তাকে মানসিক ভাবে অসুস্থ প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চলছে। মধ্যপ্রদেশে হাইকোর্টে নিরাপত্তার আবেদনও জানিয়েছেন তিনি।

সুরেন্দ্রনাথ তার মেয়ে নিখোঁজ বলে গত ১৬ অক্টোবর ভোপালের কমলানগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। আঠাশ বছরের মেয়েটি মানসিক ভাবে অসুস্থ বলেও দাবি করেন তিনি। তার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও প্রকাশ করেন ভারতী সিংহ। তিনি জানান, এক রাজনীতিকের ছেলেকে বিয়ে করতে জোর করা হচ্ছিল তাকে। তাতে রাজি না হওয়ায় লাগাতার হেনস্থা করা হচ্ছিল। তাই নিজের ইচ্ছাতেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসেছেন। আগেও বেশ কয়েক বার বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি। ভারতী বলেন, ‘আমি মানসিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ। ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভুয়া দলিল তৈরি করেছে আমার পরিবার। আমাকে মানসিক ভাবে অসুস্থ প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চলছে। ওদের মতো ক্ষমতা নেই আমার। তাই ওরকম কিছু করা সম্ভব নয় আমার পক্ষে। কিন্তু কোনওমতেই আর বাড়ি ফিরতে চাই না আমি। আমাকে সাহায্য করুন।’ বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে এসে ভালই আছেন জানিয়ে ভারতী বলেন, ‘কোনও মুসলিম বা খ্রিস্টান ব্যক্তির সঙ্গে নেই আমি। বাড়ি ছাড়তে চেয়েছিলাম, তাই বেরিয়ে এসেছি। এর সঙ্গে ধর্ম এবং জাতপাত না জুড়লেই ভাল। শান্তিতে থাকতে চাই আমি। পরিবারের লোকজন আমাকে হেনস্থা করছিল। তাই বেরিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছি।’

এক আইনজীবীর মাধ্যমে ইতিমধ্যেই হাইকোর্টে নিরাপত্তার আবেদন জানিয়েছেন ওই তরুণী। তাতে বলা হয়েছে, একটি ফিটনেস সেন্টারে কাজ করছেন তিনি। পাশাপাশি পুণে-তে নিউট্রিশন নিয়ে কোর্সও করছেন। অন্য সম্প্রদায়ের এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে তার। বিয়েও করতে চান। কিন্তু এর সঙ্গে বাড়ি ছেড়ে আসার কোনও সম্পর্ক নেই।

ভারতীর আইনজীবী অঙ্কিত সাক্সেনা জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর হেল্পলাইন এবং মহিলা আয়োগের কাছে গতবছরও পরিবারের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ জানিয়েছিলেন ওই তরুণী। তার পর পুলিশ তাকে ভোপালের হাজেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে ইঞ্জেকশন দিয়ে তাকে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়। তাই আদালতের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছেন ওই তরুণী। সেই সঙ্গে কমলানগর থানায় সুরেন্দ্রনাথ সিংহের দায়ের করা অভিযোগটিও বাতিল করার আর্জি জানিয়েছেন তিনি। তবে মেয়ের অভিযোগ নিয়ে এখনও পর্যন্ত সংবাদমাধ্যমে মুখ খোলেননি সুরেন্দ্রনাথ। সূত্র: এনডিটিভি।



 

Show all comments
  • বেলায়েত হোসাইন ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৫:২৭ পিএম says : 0
    সিংহ ফাঁদে আটকা পড়েছে ।
    Total Reply(0) Reply
  • বেলায়েত হোসাইন ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৫:২৭ পিএম says : 0
    সিংহ ফাঁদে আটকা পড়েছে ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন