Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী

বরিশালে ভাড়া হ্রাস-বৃদ্ধির প্রতিযোগিতায় বেসরকারী এয়ারলাইন্সগুলো

প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বরিশাল ব্যুরো : রোজার প্রথম দিকের যাত্রী মন্দা আর ঈদের আগে-পড়ের বাড়তি ভিড়ে অতিরিক্ত ব্যবসা করার লক্ষ্য নিয়ে বরিশাল সেক্টর সরকারী-বেসরকারী অকাশ পরিবহন সংস্থাগুলো অবিশ্বাস্য কম ও বেশী ভাড়ায় যাত্রী পরিবহনের প্রতিযোগিতায় নেমেছে। রমজানের শুরু থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত দক্ষিণাঞ্চলের সাথে সারা দেশের সড়ক নৌ ও আকাশপথে যাত্রী পরিবহন খুবই হ্রাস পায়। এ মন্দায় কিছুটা লোকশানেও পড়ছে পরিবহন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু যাত্রীদের আগ্রহ ধরে রাখতে বরিশাল সেক্টরে সরকারী-বেসরকারী আকাশ পরিবহন সংস্থাগুলো আগামী ২৯ জুন পর্যন্ত অবিশ্বাস্য কম ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন শুরু করেছে। পাশাপাশি ঈদুল ফিতরের ভিড়কে পুঁজি করে আকাশ পরিবহন সংস্থাগুলো যাত্রীগের গলাকাটারও সব আয়োজন সম্পন্ন করেছে।
বেসরকারী নভো এয়ার চলতি মাসজুড়ে একটি টিকেট কিনলে একটি বিনামূল্যে দেয়ার ঘোষণা দেয়ার পরে ঈদের আগে পর্যন্ত বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে মাত্র ১ হাজার ৮৫০ টাকায় যাত্রী পরিবহনের ঘোষণা দিয়েছে। তবে আগামী ২৯ জুন থেকে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত ঢাকা-বরিশাল রুটে একই এয়ারলাইন্সে সর্বনিম্ন ভাড়া নির্ধারন করেছে ৬ হাজার টাকার ওপরে। অনুরুপভাবে ঈদের পর দিন থেকে ১৮ জুলাই পর্যন্ত বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে সর্বনিম্ন ভাড়াও থাকছে ৬ হাজার টাকার ওপরে। তবে ঐ সময়ে ঢাকা-বরিশাল রুটে ভাড়া থাকছে ১ হাজার ৮৫০ টাকা।
অনরুপভাবে বেসরকারী ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স বরিশাল সেক্টরে বর্তমানে ২ হাজার ৯৯৯ টাকায় যাত্রী পরিবহন করলেও আগামী ২৯ জুন থেকে তাদের সর্বনিম্ন ভাড়া নির্ধারন করেছে ৬ হাজার ২শ’ টাকা করে। তবে ১৮ জলাই-এর পরে ভাড়া পুনরায় আগের অবস্থানে ফিরে আসবে বলে জানা গেছে। ১৮ জলাই-এর পরে আবার নতুন ভাড়া কার্যকর হবে। তবে তা জানান হয়নি।
অপরদিকে জাতীয় পতাকাবাহী রাষ্ট্রীয় আকাশ পরিবহন সংস্থা, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স গত ১৫ মার্চ থেকে ‘বৈশাখী অফার’ নামে বরিশাল সেক্টর ২ হাজার টাকায় যাত্রী পরিবহন শুরু করার পরে তা ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা হয়। ১মে থেকে সর্বনিম্ন যাত্রী ভাড়া বরিশাল সেক্টরে ২ হাজার ৩শ’ টাকায় নির্ধারিত থাকলেও গত ১৫ জুন থেকে আগামী ২৯ জুন পর্যন্ত পুনরায় ২ হাজার টাকায় যাত্রী পরিবহন করছে সরকারী এ আকাশ পরিবহন সংস্থাটি। তবে ঈদকে সামনে রেখে জুলাই-এর শুরু থেকে বরিশাল-ঢাকা-বরিশাল আকাশপথে সর্বনিম্ন ভাড়া নির্ধারন করা হয়েছে ৩ হাজার ২শ’ টাকা করে। ১৫ জুলাই-এর পরে তা পুনঃ নির্ধারিত হতে পারে। তবে সে ভাড়া কি পূর্বের ২৩শ’ টাকা নাকি নতুন কোন অফার নামে ২ হাজার টাকায় নির্ধারন করা হবে তা জানা যায়নি।
এদিকে সরকারী বিমান সংস্থাটি গত এক বছরেও যাত্রীদের বিমানবন্দরে যাতায়াতের কোন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পারেনি। অথচ খোদ বিমান চলাচল মন্ত্রী পর্যন্ত এব্যাপারে বিমান কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন। বেসরকারী নভো এয়ারের পাশাপাশি ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স’ও যাত্রীদের বাতানুকুল গাড়ীতে বিমান বন্দরে যাতায়াতেরও ব্যবস্থা করছে শুরু থেকেই। বিমান কতপক্ষ যাত্রীদের বিমান বন্দরে যাতায়াতের নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলেও গত এক বছরেও সে ব্যবস্থাটি কার্যকর করতে না পারায় যাত্রীদের বিরক্তির পাশাপাশি দুর্ভোগ থেকেই গেছে। তবে আগের মতই ‘যত শিঘ্র সম্ভব বরিশাল সেক্টরের যাত্রীদের বিমান বন্দরে যাতায়াতের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’ বলে জানিয়েছে বিমান-এর দায়িত্বশীল মহল।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বরিশালে ভাড়া হ্রাস-বৃদ্ধির প্রতিযোগিতায় বেসরকারী এয়ারলাইন্সগুলো
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ