Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

ভারতের মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানায় বিধানসভার নির্বাচন শুরু, ফল প্রকাশ ২৪ অক্টোবর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:৪৮ এএম

ভারতের মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানা রাজ্যে বিধানসভার নির্বাচন শুরু হয়েছে। সোমবার মহারাষ্ট্রে মোট ২৮৮টি আসনে ভোট নেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে হরিয়ানায় ভোট নেওয়া হচ্ছে ৯০ আসনে। দুইটি রাজ্যেই এদিন সকাল ৭টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়, তা চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। আগামী ২৪ অক্টোবর ভোটের ফল প্রকাশিত হবে।

এবারের নির্বাচনী ময়দানে মহারাষ্ট্রে প্রধান রাজনৈতিক দলগুলি হল বিজেপি, শিবসেনা, কংগ্রেস ও ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি)। প্রধান লড়াই হচ্ছে বিজেপি-শিবসেনা জোটের সাথে কংগ্রেস-এনসিপির মধ্যে। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৯৬,৬৬১টি। এই রাজ্যে মোট ৩২৩৭ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ হবে। হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে আছেন মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির দেবেন্দ্র ফড়নবিস, সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস প্রার্থী পৃত্থীরাজ চৌহান, কংগ্রেসের আশিস দেশমুখ, শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে, তার পুত্র আদিত্য ঠাকরে, এনসিপি প্রার্থী সাবেক উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার, আম আদমি পার্টির পারমিতা প্রাণগোপাল গোস্বামী, মহারাষ্ট্রের বিজেপি সভাপতি চন্দ্রকান্ত বাচ্চু পাতিল, এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ারের ভাইপো রোহিত পাওয়ার প্রমুখ।

হরিয়ানায় লড়াই হচ্ছে বিজেপি, কংগ্রস ও জননায়ক জনতা পার্টির মধ্যে। এবারের নির্বাচনী লড়াইয়ে প্রার্থী হয়েছেন মোট ১১৬৯ জন। হেভিওয়েট প্রার্থীরা হলেন বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী বিজেপি প্রার্থী মনোহর লাল খাট্টার, সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেসের ভূপিন্দর সিং হুডা, ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল লোক দল (আইএনএলডি) প্রার্থী অভয় সিং চৌতালা, জননায়ক জনতা পার্টির দুশ্যন্ত চৌতালা, বিজেপির অলিম্পিক পদক জয়ী ববিতা ফোগট, সাবেক হকি দলের অধিনায়ক সন্দীপ সিং, কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা।
গত মে মাসে লোকসভা নির্বাচনের পর এই প্রথম কোন রাজ্যে বিধানসভার নির্বাচন হচ্ছে। লোকসভা নির্বাচনে বিপুল সাফল্যের পর এই দুইটি রাজ্যেও ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া বিজেপি জোট। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জরিপে বিজেপি জোটই ক্ষমতায় আসতে চলেছে বলে আভাস পাওয়া গেছে।
এর পাশাপাশি দেশজুড়ে ১৮টি রাজ্যের ৫১টি বিধানসভা ও দুইটি লোকসভা আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রতিটি কেন্দ্রেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা কাের করা হয়েছে।

এদিন, সকালে ট্যুইট করে ভোটদানে উৎসাহ প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি লেখেন ‘আমি এই দুই রাজ্যের সমস্ত ভোটারদের কাছে আহ্বান জানাচ্ছি রেকর্ড সংখ্যক ভোট দেওয়ার জন্য এবং গণতন্ত্রের উৎসবকে আরও সমৃদ্ধশালী করার জন্য।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ