Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

টাকার বিনিময়ে মিলে ইয়াবা ফেন্সিডিল : সাহারী ইফতার ফ্রী !

প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মহসিন রাজু , বগুড়া থেকে : উত্তরাঞ্চলের কেন্দ্রীয় জেলা শহর বগুড়া একসময় শিল্প এবং সাম্প্রতিক সময়ে সংবাদপত্র ও শিক্ষার শহরের মর্যাদায় অভিষিক্ত হলেও গত ২ বছরের মধ্যে সারাদেশের পেশাদার জুয়াড়–দের কাছে বগুড়া এখন জুয়ার স্বর্গরাজ্য হিসেব্ েপরিচিত হয়ে উঠেছে । কারো কারো মতে যুক্তরাষ্ট্রে লাসভেগাস যেমন তেমনি বাংলাদেশী জুয়াড়–দের কাছে বগুড়া, অর্থাৎ বগুড়া এখন জুয়াড়–দের কাছে ‘লাসভেগাস’ ।
বগুড়ায় গত আড়াই বছর ধরে একটি চক্র বগুড়া শহরের নূরানীমোড় সুইপারপট্টি এলাকায় বিরাট পরিসরে জুয়া ও হাউজির জমজমাট আসর বসিয়েছে। দেশের কোথাও বে-আইনী হাউজির আসর চালানোর নজীর নেই। সূত্রে জানা গেছে, আড়াই বছর আগে অয়োজক চক্র ইনডোরে হাইজি চালানোর জন্য হাইকোর্টের কথিত একটি অনুমতি পত্র বগুড়ার প্রশাসনকে দেখিয়ে নূরানীর মোড়ে শামিয়ানা টাঙীয়ে সীমিত পরিসরে হাউজি শুরু করে । এই তথাকথিত হাইজি মানুষের চোখ সওয়া হয়ে গেলে হাউজির পরিসর বাড়াবার পাশাপাশি ওয়ানটেন, ফর, ঘুর্নি, শ্যুটিং সহ সব ধরনের জুয়ার জমজমাট আসর চালু করে। আয়োজকরা প্রথম দিকে পবিত্র রমজান মাসকে সম্মান দেখিয়ে জুয়া হাউজির সাময়িক বিরতি দিলেও গত দু’বছর ধরে পবিত্র রমজান মাসেও চালানো হচ্ছে জুয়া ও হাউজি। এমনকি রমজান উপলক্ষে যে সব জুয়াড়– ইফতার এর ওয়াক্তে জু/ হাউজির স্পটে উপস্থিত থাকে তাদেরকে ফ্রি ইফতার ও সেহেরি খাওয়ানো হয়। সুত্রে জানা যায়, সেহেরি ও ইফতার ফ্রি খাওয়ানো হলেও যারা মদ গাঁজা ইয়াবা ফেন্সিডিল চায় তাদের কাছে তা’ সরবরাহ করা হয় টাকার বিনিময়ে । এর মধ্যে সোমবার ও বৃহস্পতিবার হাউজির বাম্পার আসর বসে এই দিনে সারাদেশ এমনকি সীমান্তের ওই পার থেকেও আসে শত শত পেশাদার জুয়াড়– । এই জুয়ার আসরে সাধারণত লাখ লাখ টাকার লেনদেন হলেও সোম ও বৃহস্পতিবারের আসরে জুয়া / হাউজি ও মাদকের লেনদেন কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায় বলে সুত্রে জানা যায়। এই জুয়া হাউজিকে ঘিরে অবৈধ টাকার লেনদেনের সুত্রে অন্তত ৫শ মানুষের জীবিকা নির্বাহ হলেও নিঃস্ব হচ্ছে হাজার হাজার পরিবার।
সিভিল প্রশাসন ,আইন শৃংখলা বাহিনী, সরকারি দল / বিরোধী দল / এবং সংবাদপত্র সংশ্লিষ্ট সেক্টরের এমন এমন পয়েন্টে আয়োজকদের তরফে প্রতিরাতে নিয়মিত ভাবে নারায়ণগঞ্জের বহুল আলোচিত গড ফাদার নুর হোসেনের আদলে খাম পাঠানো হয় বলে কোনো তরফেই এর বিরোধিতা করা হয়না ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ