Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

এস এ গেমসে যাচ্ছেনা নারী ফুটবল দল!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

 আসন্ন নেপাল সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে থাকছে না বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। গতকাল তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। তিনি জানান, পর্যাপ্ত প্রস্তুতির অভাবে এসএ গেমসের জন্য মেয়েদের শক্তিশালী জাতীয় দল গঠন করা সম্ভব হচ্ছে না। তাছাড়া এই মূহূর্তে বাংলাদেশের নারী ফুটবলে পুর্ণাঙ্গ জাতীয় দল নেই। তাই নেপাল এসএ গেমসের নারী ফুটবলে অংশ নেবে না বাংলাদেশ। তিনি বলেন,‘নারী ফুটবলে বাংলাদেশের শক্তিশালী বয়সভিত্তিক দল থাকলেও সেই মানের জাতীয় দল নেই। অনূর্ধ্ব-১৫ থেকে ১৯ পর্যন্ত শক্তিশালী দল রয়েছে আমাদের। সেই তুলনায় এই মূহূর্তে পুর্ণাঙ্গ জাতীয় দল না থাকায় এসএ গেমসে যাওয়া হচ্ছেনা আমাদের। তাছাড়া নেপাল এসএ গেমস শুরু হতে হাতে যে সময় রয়েছে সেই সময়ের মধ্যে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নেয়াও সম্ভব হবেনা। আমাদের কিছু কিছু টুর্নামেন্ট আছে বাধ্যতামূলক। সেই গুলোতে বাংলাদেশ নারী দলকে অংশ নিতেই হয়। এসএ গেমসে অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক নয় বলে আমরা ঝুঁকি নিচ্ছিনা।’

বাফুফে সাধারণ সম্পাদক পর্যাপ্ত প্রস্তুতির অভাব ও পুর্ণাঙ্গ জাতীয় দল নেই বলে পাশ কাটিয়ে গেলেও ফুটবলবোদ্ধারা মনে করছেন, নেপাল এসএ গেমসে পদক জেতার মতো সামর্থ্য রয়েছে লাল-সবুজের মেয়েদের। সর্বশেষ গৌহাটি-শিলং এসএ গেমসে ব্রোঞ্জপদক জয়ী বাংলাদেশ দল। সাম্প্রতিক সময়ে বয়সভিত্তিক ফুটবলে লাল-সবুজের মেয়েদের পারফরমেন্সই প্রমাণ করে দক্ষিণ এশিয়ার নারী ফুটবলে বাংলাদেশ এখন শক্তিশালী দল। প্রায় সারা বছরই বাংলাদেশের বয়সভিত্তিক নারী ফুটবল দল খেলার মধ্যে থাকে। পূর্ণাঙ্গ জাতীয় দল গড়তে বয়সভিত্তিক দলের সহায়তা নিলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যায়।
নেপাল এসএ গেমসে বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা না খেললেও খেলছেন ক্রিকেটাররা। ২০১০ ঢাকা এসএ গেমসের পর এবার নেপালে ফিরছে ক্রিকেট। এবারই প্রথম যেখানে অংশ নেবে ভারতসহ ৬টি দল। ক্রিকেটে মহিলা এবং পুরুষ দুই ক্যাটাগরিতে লড়বে বাংলাদেশ। ২০১০ সালে ঢাকায় মিঠুন আলীর নেতৃত্বে স্বর্ণ জিতেছিলো টাইগার’রা। এবারো লক্ষ্য দুই ক্যাটাগরিতেই স্বর্ণ জেতা। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সুত্রে জানা গেছে, ৬ ডিসেম্বর থেকে বিপিএল শুরু হওয়ায় এসএ গেমস দলের অধিকাংশ ক্রিকেটাররাই হবে অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ের। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) কাছে ক্রিকেটারদের তালিকাও পাঠিয়েছে বিসিবি। এমনটাই জানিয়েছেন বিওএ উপ-মহাসচিব আসাদুজ্জামান কোহিনুর। আগের মতো এবারো নেপালে খেলা হবে রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে। মহিলা বিভাগে জাতীয় দল খেললেও পুরুষদের অনূর্ধ্ব-২৩ দল অংশে নেবে এসএ গেমসে। খেলতে পারবেন জাতীয় দলের ৩ ক্রিকেটারও। কোহিনুর জানান, বাংলাদেশ দলের তালিকা বিওএর কাছে জমা দিয়েছে বিসিবি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এস এ গেমস
আরও পড়ুন