Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

ভারতের কাছে হোয়াইটওয়াশ প্রোটিয়ারা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:৩৬ পিএম

ভারতের মাটিতে তৃতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচে ইনিংস ও ২০২ রানে হেরে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এরআগে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেও পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। প্রোটিয়াদের হোয়াটওয়াশ করে নিজেদের মাঠে এই নিয়ে টানা ১১টি সিরিজ জিতেছে বিরাট কোহলির দল। ঘরের মাঠে শেষ ৩২ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটি টেস্ট হেরেছে তার দল। জয়ের সেই তালিকায় যুক্ত হলো আরও একটি ম্যাচ।
সফরকারি দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম দুটিতে জেতা ভারত আগেই সিরিজ নিশ্চিত করেছিল। তবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ হওয়ায় শেষ ম্যাচটিও গুরুত্বপূর্ণ ছিল সমান ভাবেই। তৃতীয় দিন শেষে সিরিজের শেষ ম্যাচ জিততে ভারতের দরকার ছিল মাত্র দুটি উইকেট। চতুর্থ দিনের শুরুতেই একটি উইকেট তুলে নেয় আর আঘাত পেয়ে মাঠ ছেড়ে যাওয়া ডিন এলগার আর মাঠে না নামলে জয় নিশ্চিত হয় ভারত।
রোহিত শর্মার টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি, আজিঙ্কা রাহানের সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক ভারত। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের এই ম্যাচের তৃতীয় দিন শেষেও ধুঁকছিল সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। কোনোভাবে ম্যাচ বাঁচাতে হলে অলৌকিক কিছুই করতে হত প্রোটিয়াদের। ম্যাচের দুদিন বাকি থাকলেও প্রোটিয়াদের হাতে ছিল ২ উইকেট, আর সামনে ছিল ২০৩ রানের পাহাড়। তবে ইতিহাস গড়া আর হয়নি সফরকারীদের। চতুর্থ দিনে মাত্র ১ রান যোগ করতেই ৯ম উইকেট তুলে নেয় ভারত।
রাঁচি টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৪৯৭ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। প্রথম ইনিংসে ১৬২ রানে অলআউট হয় প্রোটিয়ারা। ফলোঅনে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে সফরকারীরা ৯ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৩৩ রান। চোট পেয়ে উঠে যাওয়া ডিন এলগার আর ব্যাট করতে না নামলে শেষ হয় প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংস। ভারতের পেসার শামি তিনটি, উমেস যাদব এবং শাবাজ নাদিম দুটি, জাদেজা এবং অশ্বিন একটি করে উইকেট তুলে নেন। প্রথম ইনিংস ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানো রোহিত শর্মা হন ম্যাচ সেরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ