Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ৬ টাকা ভাড়া কমবে

সংবাদ সম্মেলনে উৎসব পরিবহনের চেয়ারম্যান

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলকারী উৎসব পরিবহনের ভাড়া ৩৬ টাকা থেকে কমিয়ে ৩০ টাকা করতে চান পরিবহনটির চেয়ারম্যান কামাল মৃধা। কিন্তু একটি পক্ষ তার এই মহতী উদ্যোগকে বাঁধাগ্রস্থ করতে চায়। তাদের বাঁধা এবং প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির ভয়ে তিনি এ রুটে পরিবহনটির নতুন বাস সংযোজনে ভয় পাচ্ছেন। এজন্য তিনি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন। গতকাল দুপুরে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে পরিবহনটির পক্ষ থেকে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ শঙ্কা প্রকাশ করে প্রশাসন ও গণমাধ্যমের সহায়তা কামনা করেন।
সংবাদ সম্মেলনে কামাল মৃধা বলেন, গত ১৭ বছর পরিবহনটিকে জবর দখল করে একটি পক্ষ পরিচালনা করেছেন। প্রাণনাশের ভয়ে তিনি এতদিন আমেরিকায় ছিলেন। গত বছর দেশে ফিরে এসে নিজের গড়া উৎসব পরিবহন ফিরে পাওয়ার লড়াইয়ে নামেন। এজন্য তিনি পুলিশ প্রশাসনের স্মরণাপন্ন হন। পুলিশের সহযোগিতায় তিনি উৎসব পরিবহন ফিরে পেলেও একটি পক্ষ রাতারাতি উৎসব ট্রান্সপোর্ট নামে আবারো গাড়ি পরিচালনা শুরু করে। যা সম্পূর্ণ অবৈধ। কারণ ওই নামে চলাচলকারী কোন পরিবহনের রুট পারমিট নেই।
= বিষয়টি পুলিশের নজরে এলে পুলিশ গত সপ্তাহে সেটি চলাচল বন্ধ করে দেয়। এরপর রহস্যজনকভাবে অবৈধ সেই পরিবহনটি আবারো চলাচল শুরু করে। এর মধ্যে গত শনিবার সকালে তার একজন কর্মচারীকে নারায়ণগঞ্জ বাস টার্মিনাল থেকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়। দুই ঘণ্টা পর তাকে আবার ছেড়ে দেওয়া হয়। এভাবে তার বিরোধী চক্রটি তাকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে।
সংবাদ সম্মেলনে কামাল মৃধা আরও বলেন, দেশের ইতিহাসে তিনিই প্রথম যে রীতি ভঙ্গ করে ভাড়া কমানোর ঘোষণা দিলেন। কারণ দেশের রীতি অনুযায়ী কোন পরিবহনের ভাড়া কমেনি। বরং উত্তরোত্তর বেড়েছে। তিনি চাঁদাবাজিমুক্ত একটি পরিবহন গড়ে তুলতে চান নারায়ণগঞ্জবাসীর সুবিধার্থে।
কামাল মৃধা বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রতিদিন ২ লাখ মানুষ বাসে ঢাকা যাতায়াত করে। ওই ২ লাখ মানুষের কাছ থেকে ৬ টাকা করে কম ভাড়া নিলে দিনে ১২ লাখ টাকা কম নেওয়া হবে। এখন এই ১২ লাখ টাকা কারও না কারও পকেটে যাচ্ছে। ৬ টাকা কম ভাড়া নিয়েও পরিবহন পরিচালনা সম্ভব, যদি চাঁদাবাজি না হয়।
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে উৎসব পরিবহনের নতুন আমদানি করা গাড়ি প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, যেদিন আমাকে প্রশাসন থেকে বলা হবে, বাস চলাচলের ক্ষেত্রে প্রশাসন নিরাপত্তা দেবে এবং কোন সমস্যা হবে না সেদিনই নতুন বাসগুলো চলাচল শুরু করবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ