Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

বর্তমান সরকারের আমলে কোন মানুষ নিরাপদ নয়

সারাদেশে বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

ভোলার বোরহানউদ্দিনে ধর্মপ্রাণ মুসল্লেিদর উপর নির্বিচারে গুলি করে গণহত্যার প্রতিবাদ ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে পুলিশ ছিলো সতর্কাবস্থায়, কয়েক স্থানে পুলিশি বাঁধায় পÐ হয়ে যায় সমাবেশ। আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্যে প্রতিবেদন :
রাজশাহী ব্যুরো জানায় : রাজশাহীতে সমাবেশে প্রধান অতিথিরি বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু বলেন, বাংলাদেশ ধর্মীয় সম্প্রীতির দেশ হলেও বর্তমান অনির্বাচিত সরকার তা অশান্ত করে তুলেছে। বর্তমান সরকারের আমলে কোন মানুষ নিরাপদ নয়। জনগণের ভোটে নির্বাচিত না হওয়ার তাদরে জনগণের নিকট কোন জবাবদিহিতা নাই।
গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় নগরীর মালোপাড়াস্থ বিএনপি কার্যালয়ের সামনে রাজশাহী মহানগর ও জেলা বিএনপি’র আয়োজনে প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, বিশ্বনবী ইসালামের দিশারী সারা বিশ্বের মুসলমানদের পথ প্রদর্শক হযরত মোহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে নাস্তিকরা কটুক্তি করলেও সরকার নীরব থাকে। অথচ বর্তামন প্রধানমন্ত্রীর নামে কেউ সামান্য কটুক্তি করলেও তাদের আইনের আওতায় এনে জেল ও জরিমানা করা হচ্ছে। ভোলার বোরহানউদ্দিনে রসুলুলাøাহ (সাঃ) কে নিয়ে কটুক্তি করার প্রতিবাদ করায় পুলিশ সাধারণ জনগণ ও মুসল্লীদের গুলি করে হত্যা করেছে। এই সরকারর ভারতের দালালে পরিণত হয়েছে। প্রভুদের খুশি করতে মুসলানদের উপর নির্যাতন নেমে আসলেও সরকার প্রধান নিরব ভূমিকা পালন করেন।
সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা বিএনপি’র আহবায়ক আবু সাঈদ চাঁদ। প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব বিশ্বানাথ সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডাভোকেট শফিকুল হক মিলন, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সহিদুন্নাহর নাহার কাজি হেনা, জেলা বিএনপি’র সদস্য ও তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান ও নওহাটা পৌর মেয়র শেখ মকবুল হোসেন।
বগুড়া ব্যুরো জানায় : গতকাল বুধবার সকালে বগুড়া বিএনপির কার্যালয়ে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলালের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু।
সমাবেশে অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, বিএনপি নেতা লাভলী রহমান, জয়নাল আবেদিন চান, মাহবুবার রহমান বকুল, এম আর ইসলাম স্বাধীন, শহিদ- উন-নবি-সালাম, ওমর ফারুক খান, শহিদুল ইসলাম বাবলু। সমাবেশে বিভিন্ন উপজেলা ও অঙ্গদলের নেতাকর্মীরা যোগ দেন। নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ সদস্যরা সমাবেশের দুই পাশে কাটাতারের বেড়া নির্মাণ করে ও জলকামান সতর্ক অবস্থায় রাখে।
নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা জানান : জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক তাজেজুল ইসলাম ফারাস সুজাতের সভাপতিত্বে যুগ্ম আহবায়ক এস এম মনিরুজ্জামান দুদুর পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব ড. মো. রফিকুল ইসলাম হিলালী।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিঃ যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট মাহফুজুল হক, জেলা কৃষক দলের সভাপতি সালাহ্উদ্দিন খান মিল্কী, বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক বজলুর রহমান পাঠান, জেলা যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমান মশু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সোলায়মান হাসান রুবেল, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট খলিদ সাইফুল্লাহ মুন্না, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক হাসনাত হাসান সৈকত, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক অনীক মাহবুব চৌধুরী প্রমূখ।
নীলফামারী সংবাদদাতা জানান : পুলিশী বাঁধায় বিক্ষোভ মিছিল করতে পারেনি বিএনপি। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করে দলটি। সকালে জেলা বিএনপি কার্যালয়ে জড়ো হতে থাকে বিএনপির নেতাকর্মীরা। পরে সকাল সাড়ে দশটার দিকে বিক্ষোভ মিছিল করতে চাইলে পুলিশ বাঁধা দেন। পরে সেখানে প্রতিবাদ সমাবেশ করেন দলটি।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির আহবায়ক আলমগীর সরকার, সদস্য সচিব জহুরুল আলম, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি রাহেদুল ইসলাম দোলন, সাধারণ সম্পাদক আখতারুজামান জুয়েল, জেলা যুবদলের সভাপতি সাইফুল্লাহ রুবেল, পৌর বিএনপির সভাপতি মাহবুব উর রহমান, জেলা মৎস্যজীবি দলের সভাপতি গোলাম মোস্তফা রঞ্জু, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মারুফ পারভেজ প্রিন্স প্রমূখ।
টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা জানান: সকালে শহরের নিরালা মোর শহীদ মিনার থেকে জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশি বাধায় তা পন্ড হয়ে যায়। পরে সেখানেই প্রতিবাদ সমাবেশ করে বিএনপি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি জিয়াউল হক শাহীন, যুগ্মসম্পাদক আবুল কাসেম, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুর রহমান শফিক, আশরাফ পাহেলী, প্রচার সম্পাদক একেএম মনিরুল প্রমূখ।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ফরহাদ ইকবাল।



 

Show all comments
  • Mujahid Chowdhury ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৭ এএম says : 0
    Right
    Total Reply(0) Reply
  • Omar Faruk ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    কি আজব দেশ আবার বলে গনতন্ত্র ও আছে!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Moshqur Elahi ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    আমরা আগামি কাল অফিসে বসে বিক্ষভ ও প্রতিবাদ করব। সকল টিভি সাংবাদিকদের খবর দেওয়া হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Hossain Ahamed ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    স্যার,আর কত প্রতিবাদ জানাবেন,
    Total Reply(0) Reply
  • Md Nazmul Dewan ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    রাজনীতির মাঠ এখন বি এন পি র দখলে এখনই সুযোগ গর্জে উঠো।
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাঃ জয়নাল ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    আর জোরালো প্রতিবাদ দরকার
    Total Reply(0) Reply
  • এনামুল হক এনাম ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    নীলফামারী জেলা ছাএদল এর পক্ষ থেকে সংগ্রামী শুভেচ্ছা রইল।
    Total Reply(0) Reply
  • ahammad ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ২:২৬ এএম says : 0
    দেশের গনতন্ত্র রখ্খার্থে সকল বেদাবেদ ভুলেগিয়ে অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাড়ান। দেশে জানমাল ও ধর্মীয় সাংস্কিতি রখ্খাকরা সকলের ঈমনী দায়িত্ব।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Jakir Hossain ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:৪১ পিএম says : 0
    All wright
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিএনপি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ