Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

বাকৃবি শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের রাতভর নির্যাতন

ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

বাকৃবি সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

 বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) শহীদ জামাল হোসেন হল ছাত্রলীগের সভাপতি দীপক হালদারকে সালাম না দেওয়ায় গত ৫ আগষ্ট গভীর রাত পর্যন্ত হলের কক্ষে আটকে রাখা হয় মো. মাকসুদুল হক ইমু নামের এক শিক্ষার্থীকে। হল ছাত্রলীগ সভাপতির নির্দেশক্রমে হলের অন্য নেতারা তার উপর চড়াও হয়। এ সময় তাকে স্টাম্প দিয়ে মারধর করেন হল ছাত্রলীগের নেতারা।

এ ঘটনা ঘটার পরে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। সেটি উল্লেখ করে এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় কি ব্যবস্থা নিয়েছে তা জানতে চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব নীলিমা আফরোজ স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে আগামী ৭ কর্মদিবসের মধ্যে এ ব্যবস্থা গ্রহণ করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, মাকসুদুল হক ইমু বিশ্ববিদ্যালয়ের পশুপালন অনুষদের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। হল ছাত্রলীগের সহসভাপতি আবদুল্লাহ্ হিশ শাফি, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শাওন এবং পাঠাগার সম্পাদক মো. রাহাত হোসেন রাত ১টার দিকে ওই শিক্ষার্থীকে হলের পূর্ব ফার্স্ট ব্লকের ৫ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে যান। পরে তারা হল সভাপতিকে সালাম না দেওয়ার কারণ জানতে চান এবং তাকে স্টাম্প দিয়ে পেটান।
নির্যাতনের ঘটনার পরের দিন তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো. ছাইফুল ইসলামের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী ছাত্রবিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. আজহারুল ইসলাম, ফসল উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এ কে এম জাকির হোসেন এবং সহকারী প্রক্টর চয়ন গোস্বামীকে সদস্য করে কমিটি গঠন করা হয়। তবে কত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে হবে, বিজ্ঞপ্তিতে সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা দেওয়া ছিল না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল হক বলেন, সম্প্রতি তদন্ত কমিটি এ বিষয়ে একটি রির্পোট জমা দিয়েছে। আমরা ওই রির্পোটের উপর ভিত্তি করে দ্রুতই ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছি।



 

Show all comments
  • Abdullah Mamun ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
    আমার ফুফাত ভাই ও এই নির্যাতন এর শিকার।
    Total Reply(0) Reply
  • Ph Srabon ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
    খবর প্রচারের ভাষায় পরিবর্তন এনেছে খবর মাধ্যম, কিন্তু ... লুকাতে পারলোনা,
    Total Reply(0) Reply
  • Obaidul Bari Khan Nasif ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    এই ধরনের অপকর্মের তীব্র নিন্দা জানাই
    Total Reply(0) Reply
  • এম আনোয়ারুল হক ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    অতীতের সব তদন্ত কমিটির মত আর কোন দায়সারা তদন্ত দেখতে চায় না বাকৃবির আপামর শিক্ষার্থীরা। দোষী যেই হোক কঠোর শাস্তির দাবি জানাই।
    Total Reply(0) Reply
  • Golam Rabbani ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    সালাম সাধারণত সম্মানার্থে আদান-প্রদান হয়। জোর করে সম্মান আদায় করা যায়না। আর জালিমরে জুলুমের ভয়ে নিরীহ মানুষ অনেক সময় করে।।
    Total Reply(0) Reply
  • Mahmud Hussain ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    shameful for BCL and Ruling Awami Lig
    Total Reply(0) Reply
  • H.M.Karim ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:৩৮ এএম says : 0
    নেতাদেরকে সালাম করতে হবে পৃথিবীর কোন সংবিধান লিখা আছে, এদেরকে বহিষ্কার করা হউক।
    Total Reply(0) Reply
  • Yourchoice51 ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:৩৮ এএম says : 0
    দোষীদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং ফৌজদারি দণ্ডবিধি অনুযায়ী সরকার কি ব্যবস্থা নেয়, তা জনগণকে সত্বর জানানোর অনুরোধ করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ২৪ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:৫৮ এএম says : 0
    After Abrar dead brutality incident,still satro lig uncontrollable in the campus of educational institutions,Now this is time to ban them for the sack of our future generations
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিক্ষা মন্ত্রণালয়

২২ জানুয়ারি, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ